প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রধান বিচারপতির পিতার দাফন সম্পন্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক : কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে গ্রামের বাড়িতে চিরশয্যায় শায়িত হলেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের পিতা অ্যাডভোকেট সৈয়দ মুস্তফা আলী। বুধবার সকালে কুমিল্লার আদালত প্রাঙ্গণে দ্বিতীয় জানাজা ও দুপুরে নাঙ্গলকোটের দেওভান্ডার গ্রামে তৃতীয় জানাজা শেষ তাঁকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

এরআগে মঙ্গলবার বিকালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন প্রধান বিচারপতির পিতা ও কুমিল্লা জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি এডভোকেট সৈয়দ মোস্তফা আলী। খবর পরিবর্তন.কম’র।

স্বনামধন্য এ আইনজীবীর দাফনে উপস্থিত ছিলেন, তাঁর পুত্র ও প্রধানবিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন, সুপ্রীমকোর্টের রেজিস্ট্রার ড. জাকির হোসেন, কুমিল্লার জেলা প্রশাসক আবুল ফজল মীর, পুলিশ সুপার মো. শাহ আবিদ হোসেন, নাঙ্গলকোট উপজেলা চেয়ারম্যান সামছুউদ্দিন কালু, উপজেলা নির্বাহী অফিসার দাউদ হোসেন চৌধুরী, পৌর মেয়র আবদুল মালেকসহ প্রশাসনের কর্মকর্তাগণ, আইনজীবী, রাজনীতিবীদ ও নানা শ্রেণিপেশার মানুষ। দাফন শেষে কুমিল্লা জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, নাঙ্গলকোট উপজেলা প্রশাসন, পৌরসভাসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ মরহুমের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।
কুমিল্লার আদালত প্রাঙ্গণে শেষ শ্রদ্ধা

এদিকে বুধবার সকালে কুমিল্লার আদালত প্রাঙ্গণে প্রধান বিচারপতি পিতা কুমিল্লা জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি বিশিষ্ট আইনজীবী এডভোকেট সৈয়দ মোস্তফা আলীর প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করা হয়। নবাগত জেলা ও দায়রা জজ একেএম শামসুল আলমের নেতৃত্ব কুমিল্লার বিচার বিভাগ, জেলা প্রশাসক মো. আবুল ফজল মীরের নেতৃত্বে জেলা প্রশাসন, পুলিশ সুপার মো. শাহ আবিদ হোসেনের নেতৃত্ব পুলিশ প্রশাসন, জেলা আইনজীবী সমিতি, সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ, সরকারি আইন কর্মকর্তাগণসহ বিভিন্ন সামাজিক ও পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ফুল দিয়ে মরহুমের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

এদিন সকাল ১০টায় আদালত প্রাঙ্গনে তার ২য় জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। জানাজার পূর্বে উপস্থিত মুসল্লি ও আইনজীবীদের উদ্দেশে দেয়া বক্তব্যে বাবার জন্য দোয়া কামনা করেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন। জানাজায় অংশগ্রহণ করেন কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মনিরুল হক সাক্কু, কুমিল্লা জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক আলহাজ্ব ওমর ফারুক, প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা মফিজুর রহমান বাবলু, জজকোর্টের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) এড. মোস্তাফিজুর রহমান লিটন, আইনজীবী সমিতির সভাপতি আবুল হাসেম খান, সাবেক সভাপতি এডভোকেট মো. ইসমাইল প্রমুখ।

জানাজা শেষে এডভোকেট সৈয়দ মোস্তফা আলীর মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় নাঙ্গলকোট উপজেলার দৌলখাড় ইউনিয়নের দেওভান্ডার গ্রামে। সেখানে তৃতীয় জানাজা শেষে বাদ জোহর তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত