প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নকআউট পর্বে সুইডেন ও মেক্সিকো
দ. কােরিয়ার কাছে হেরে বিশ্বকাপ থেকে জার্মানির বিদায়

এল আর বাদল : ১৯৩০ থেকে ২০১৮, বিশ্বকাপের একুশতম আসর। রাশিয়ায় চলমান এই আসরটি বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জার্মানির জন্য সুখকর হল না। বিশ্বকাপের টানা একুশতম আসরে অংশ নিয়ে দুর্বল দক্ষিণ কোরিয়ার কাছে হেরে প্রথমবারের মতো গ্রপ পর্ব থেকে বিদায় নিল জার্মানি। ২০১০ সালে বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্ব থেকে বাদ পড়ে আগের আসরের চ্যাম্পিয়ন ইতালি। ব্রাজিলে গত বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্ব থেকে ছিটকে পড়েছিল চ্যাম্পিয়ন স্পেন।
জার্মানির বিদায়ের দিনে লক্ষ্য পূরণ করলো সুইডেন আর মেক্সিকো। তারা উঠে গেলো বিশ্বকাপের নকআউট পর্বে। গ্রুপ পর্বে টানা দুই ম্যাচ হেরে যাওয়া দল দক্ষিণ কোরিয়াও এদিন পেয়ে বসলো জার্মানিকে। অনেক চড়াই উৎরাই পেরিয়ে কোরিয়া ইনজুরি টাইমে দু’দুবার বল ঢুকিয়ে দিলো জার্মানির জালে। শেষ পর্যন্ত ২-০ গোলে হার মেনে মাঠ ছাড়লো জোয়াকিম লোর শিষ্যরা।

বিশ্বকাপের নিজস্ব প্রথম ম্যাচে মেক্সিকোর কাছে হার দিয়ে শুরু করে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচটাও হেরে গেলো ২০১৪ বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানি। ওদিকে সুইডেন ৩-০ গোলে হারিয়ে দিয়েছে মেক্সিকোকে। তাতে সুইডিশ ও মেক্সিকানরা চলে গেছে চলমান বিশ্বকাপের শেষ ষোলতে। গ্রুপ ‘এফ’ এর শেষ দুই ম্যাচের এই ফলে গতকাল বুধবার জার্মানির করুণ বিদায় হয়ে গেল রাশিয়া বিশ্বকাপ থেকে। সুইডেন ৩ ম্যাচে দুই জয়ে ৬ পয়েন্ট পেল। মেক্সিকোরও দুই জয়ে ৬ পয়েন্ট। কিন্তু গোল ব্যবধানে সুইডিশরা হলো এই গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন। আর মেক্সিকো গ্রুপ রানার্স আপ। ১টি জয় ও দুটি করে হারে জার্মানি ও কোরিয়ানরা বিদায় নিল প্রথম রাউন্ড থেকে। দুই দলেরই পয়েন্ট ৩ করে।
বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জার্মানির বিদায় দিয়েই কি শেষ হলো এবারের বিশ্বকাপের প্রথম রাউন্ডের অঘটন? নাকি আরও অনেক অঘটন আপেক্ষা করছে।

কাজানে বুধবার প্রথমার্ধের শুরু থেকে আক্রমণ করে খেলে জার্মানি তবে টিমো ভের্নার,মার্কো রয়েসরা গোলের তেমন কোনো ভালো সুযোগ তৈরি করতে পারেননি। লাল কার্ডের জন্য জার্মান দলে নেই জেরোম বোয়াটেং, চোট কাটিয়ে উঠতে পারেননি আরেক ডিফেন্ডার আন্টোনিও রুডিগার। তবে তার কোনো প্রভাব শিরোপাধারীদের রক্ষণে পড়েনি।
অষ্টাদশ মিনিটে মানুয়েল নয়ারের ব্যর্থতায় সুযোগ পেয়ে যায় দক্ষিণ কোরিয়া। মিডফিল্ডার জুং উ ইয়ংয়ের ফ্রি-কিকে বল জার্মান গোলরক্ষকের হাত থেকে ফস্কে যায়। তবে ছুটে গিয়ে সন হিয়ুং মিন শট নেওয়ার আগেই কোনোমতে ফিস্ট করে বল সরিয়ে দিতে পারেন নয়ার। ৪০তম মিনিটে কর্নার থেকে ভের্নারের কাট ব্যাকে বল পান মাটস হুমেলস। তার শট ফিরিয়ে দেন দক্ষিণ কোরিয়ার গোলরক্ষক চু হিয়ুং য়ু।
দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই এগিয়ে যেতে পারত জার্মানি। দ্বিতীয় মিনিটে জসুয়া কিমিচের ক্রসে অরক্ষিত লেয়ন গোরেটস্কার হেড দারুণ দক্ষতায় ঝাঁপিয়ে ঠেকিয়ে দেন দক্ষিণ কোরিয়ার গোলরক্ষক। ৫১তম মিনিটে বিপদজ্জনক জায়গায় বল পেয়ে ভলি লক্ষ্যে রাখতে পারেননি ভের্নার। জার্মানি হারায় এগিয়ে যাওয়ার আরেকটি ভালো সুযোগ। যোগ করা সময়ে দুই গোল করে জার্মানিকে বিদায় করে দিল কোরিয়া।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত