প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ২০২৩ পর্যন্ত টেস্ট নেই বাংলাদেশের!

নিজস্ব প্রতিবেদক: ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) বুধবার ২০১৮ থেকে ২০২৩ সাল পর্যন্ত ফিউচার ট্যুর প্রোগ্রাম (এফটিপি) অনুমোদন করেছে। নতুন এফটিপিতে বেড়েছে বাংলাদেশের ম্যাচ। বিশেষ করে টেস্ট ম্যাচ আগের থেকে বেশি খেলার সুযোগ পাবে টাইগাররা।

কিছুদিন পরই বাংলাদেশ যাচ্ছে ওয়েস্ট ইন্ডিজে। ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জে সাকিবের নেতৃত্বে বাংলাদেশ খেলবে ২টি টেস্ট। এই দুই টেস্ট দিয়েই বাংলাদেশের এফটিপি শুরু হচ্ছে। ২০২৩ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপ দিয়ে শেষ হবে এফটিপি। নতুন এফটিপিতে বাংলাদেশ ৪৪ টেস্ট খেলার সুযোগ পাচ্ছে।

টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়া দেশগুলো মধ্যে শুধু ইংল্যান্ডের বিপক্ষে এ সময়ে কোনো টেস্ট খেলবে না বাংলাদেশ। ঘরের মাঠে ২০২১ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি খেলবে। এছাড়া এই ছয় বছরে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে কোনো টেস্ট ম্যাচ নেই বাংলাদেশের।

বাংলাদেশ সবথেকে বেশি টেস্ট খেলবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে। দুই দল খেলবে মোট ৯টি টেস্ট, যার ৪টি ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে, বাকি ৫টি বাংলাদেশে। এছাড়া জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৮টি, নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৭টি, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৫টি, ভারত ও পাকিস্তানের বিপক্ষে ৪টি করে, দক্ষিণ আফ্রিকা, অস্ট্রেলিয়া ও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ২টি করে এবং আফগানিস্তানের বিপক্ষে ১টি টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ।

দ্বিপাক্ষিক সিরিজের পাশাপাশি রয়েছে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ। টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশের মোট ১৪ টেস্ট। শ্রীলঙ্কা, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সর্বোচ্চ ৩টি করে। ভারত, পাকিস্তান, অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ২টি করে টেস্ট ম্যাচ বাংলাদেশের।

নতুন এফটিপিতে একটি মাত্র ত্রিদেশীয় সিরিজ বাংলাদেশের। ২০১৯ সালে আয়ারল্যান্ডের মাটিতে বাংলাদেশ ও আয়ারল্যান্ডের সঙ্গে খেলবে আফগানিস্তান।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত