প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মোবাইলেই বিদ্যুৎ সমস্যার সমাধান করবে ডেসকো

স্বপ্না চক্রবর্তী : মোবাইল ফোনের মাধ্যমে বিদ্যুৎ সমস্যা সমাধানের বিশেষ ব্যবস্থা করেছে ঢাকা ইলেকট্রিক সাপ্লাই কোম্পানী (ডেসকো) লিমিটেড। অনলাইনে বিদ্যুৎ প্রদানের পাশাপাশি বিদ্যুৎ বিভ্রাট বা সেবা সংক্রান্ত সব ধরনের সমস্যাসহ নতুন বিদ্যুৎ সংযোগের কাজও সম্পন্ন হবে একই মোবাইল ফোনে।

গ্রাহকসেবাকে ডিজিটাইলেজশনের আওতায় নিয়ে আসার ব্যাপারে ডেসকো’র নির্বাহী পরিচালক মো. আব্দুল্লাহ আল মাসুদ চৌধুরী মঙ্গলবার বলেন, শুরু থেকেই ডেসকো গ্রাহকসেবা এবং ব্যবস্থাপনা পর্যায়ে তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহার করে আসছে। ডেসকোর আভ্যন্তরীন লোকবলকে তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ে সমৃদ্ধ করে গ্রাহকসেবা উন্নত করেছে যার কারণে ডেসকোর গ্রাহকসেবা বাংলাদেশের বিদ্যুৎ বিতরণ খাতে একটি মডেল হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।

তিনি বলেন, বর্তমান সরকার ঘোষিত ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়ন করার লক্ষ্যে ডেসকো নানাবিধ কর্মসূচী হাতে নিয়েছে। এর মধ্যে গ্রাহক সেবার মান বৃদ্ধি, দক্ষতা, স্বচ্ছতা এবং জবাবদিহিতা বৃদ্ধির মাধ্যমে সুশাসন প্রতিষ্ঠা করার লক্ষ্যে তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহারের বিষয়টি রয়েছে। তিনি জানান, ডেসকো কর্তৃক তথ্যপ্রযুক্তির উপর যে সকল কর্মসূচিসমূহ গৃহীত হয়েছে ডেসকো’র নিজস্ব ওয়েবসাইট এ সিটিজেন চার্টার ও লোড ম্যানেজমেন্টসহ অন্যান্য তথ্য প্রকাশ করা। যেখানে এসএসএলদ নিরাপত্তার মাধ্যমে ইন্টারনেট নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হচ্ছে।

তিনি আরো জানান, ডেসকো তাদের গ্রাহকদেরকে মোবাইলের মাধ্যমে বিদ্যুৎ বিল সংক্রান্ত তথ্য, বিদ্যুৎ ব্যবহারের তুলনামূলক লেখচিত্র, জরুরী সেবা প্রাপ্তির ফোন নম্বর এবং নির্দিষ্ট গ্রাহকের অফিস লোকেশন সম্বলিত একটি মোবাইল অ্যাপস এর মাধ্যমে গ্রাহক তার বিদ্যুৎ বিল নেক্সাস/ভিসাকার্ডের মাধ্যমে পরিশোধও করতে পারবে। গ্রাহক ডেসকোর সেবা প্রাপ্তির বিষয়ে মতামতও দিতে পারবে। ফেসবুক ও ডেসকো ওয়েবসাইটে ঢুকতে পারবেন এবং ই-মেইলে কিংবা ফেসবুকে তার মতামত দিতে পারবে। অ্যাপসটি অত্যন্ত ব্যবহার বান্ধব, কারও নিকট স্মাট মোবাইল ফোন না থাকলে এসএমএস এর মাধ্যমে নির্দিষ্ট বিদ্যুৎ সেবা নিতে পারবে।

মো. আব্দুল্লাহ আল মাসুদ চৌধুরী জানান, বর্তমানে ই-গভার্নেন্স সফটওয়্যার এর আওতায় চালু সার্ভিসগুলো হলো কম্পিউটারাইজড কনজুমার বিলিং এন্ড একাউন্টিং সিস্টেম, ওয়ান পয়েন্ট সার্ভিস ও নিউ কানেকশন সিস্টেম এর ফাইল মুভমেন্ট ও অনুমোদন প্রক্রিয়া, অনলাইন নিউ কানেকশন সিস্টেম এর মাধ্যমে বিদ্যুৎ সংযোগের আবেদনপত্র গ্রহন। এছাড়াও ভবিষ্যতে অন্যান্য ক্ষেত্রে ই ফাইল মুভমেন্ট সম্প্রসারণ করার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। এছাড়া প্রি-পেইড মিটারে ডেসকো অগ্রীম রাজস্ব আদায় এবং সিস্টেম লস হ্রাসে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। ডেসকোর আওতাধীন উত্তরা, উত্তরখান, বারিধারা, আগারগাঁও এবং পল্লবী এলাকায় প্রায় ৭৯হাজার ৬৬৩টি প্রি-পেইড মিটার স্থাপন করা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন টেলিফোন শিল্প সংস্থা এর কারিগরী সহায়তায় ডেসকো মিরপুরে প্রি-পেইড মিটার মেনুফেকচারিং ইউনিট এ মিটার স্থাপনের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে এবং টেশিস থেকে ২লক্ষ মিটার স্থাপন করা হচ্ছে। বিদ্যুৎ বিভাগের নির্দেশনায় আগামী ৫বছরের মধ্যে শতভাগ প্রি-পেইড মিটার স্থাপনের কার্যক্রমও ডেসকো গ্রহণ করেছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত