প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বাংলাদেশসহ এশিয়ান দেশগুলো থেকে পশুখাদ্য আমদানি শুল্ক তুলে নিলো চীন

নূর মাজিদ : যুক্তরাষ্ট্র থেকে আমদানিকৃত পশুখাদ্য বিশেষ করে সয়াবিনজাত পশুখাদ্য শস্যে মূল্য শুল্ক আরোপ করবার পর এবার এশিয়ার দেশগুলো থেকে আমদানিকৃত পশুখাদ্যের উপর থেকে শুল্ক তুলে নিলো চীন। মঙ্গলবার চীনের বাণিজ্য মন্ত্রণালয় জানায়, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বাণিজ্য উত্তেজনার প্রেক্ষিতে বেইজিং বিকল্প উৎস থেকে সস্তায় পশুখাদ্য আমদানির সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই সিদ্ধান্তের আওতায় এশিয়ার দেশগুলি থেকে পশুখাদ্য হিসেবে আমদানি করা সয়াবিন, সয়ামিল এবং রাই-সরিষার উপরে কোন বাণিজ্য শুল্ক আদায় করবেনা চীন। এই দেশগুলির মধ্যে বাংলাদেশও রয়েছে।

মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়, তারা বাংলাদেশ, লাওস, দক্ষিণ কোরিয়া, ভারত এবং শ্রীলঙ্কা থেকে আমদানিকৃত পশুখাদ্যের ওপর থেকে শুল্ক উঠিয়ে নেবেন। পহেলা জুলাই থেকে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হবে। বর্তমানে দেশটি সয়াবিনজাত শস্যে ৩ শতাংশ, রাই-সরিষায় ৯ শতাংশ এবং সয়াবিন মিল ও কেক’এ যথাক্রমে ৫ ও ২ শতাংশ শুল্ক আদায় করে থাকে। এছাড়াও জুলাই থেকেই যুক্তরাষ্ট্রের সয়াবিনে অতিরিক্ত শুল্ক আদায় করবে চীন।

এদিকে চীনের এই সিদ্ধান্ত এদিকেই দিক-নির্দেশ করে যে শুল্কারোপের পর যুক্তরাষ্ট্রের সয়াবিনের ওপর থেকে নির্ভরতা কমিয়ে আনতে চাইছে চীন। যুক্তরাষ্ট্র থেকে বিপুল পরিমাণ সয়াবিন জাতীয় শস্য পশুখাদ্য হিসেবে আমদানি করে চীন। মার্কিন অর্থনৈতিক গণমাধ্যম ব্লুমবার্গ জানায়, ইতোমধ্যেই চীনের এমন সিদ্ধান্তে যুক্তরাষ্ট্রের সয়াবিন ও ভুট্টা চাষিরা দুশ্চিন্তায় পড়েছেন।

তবে সাম্প্রতিক সময়ে এশিয়ার দেশগুলোর বাহিরে ব্রাজিলের কৃষিখাতে তার বিনিয়োগ বৃদ্ধি করেছে চীন। এছাড়াও ব্রাজিল থেকেও তারা বিপুল পরিমাণ খাদ্যশস্য এবং পশুখাদ্য আমদানি করে থাকে। দেশটি বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহৎ সয়াবিন উৎপাদক। রয়টার্স/ ব্লুমবার্গ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত