প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিএনপি নেতাদের স্বাক্ষর জাল করে মনোনয়ন বাগিয়ে নেয়ার অভিযোগ!

খোকন আহম্মেদ হীরা, বরিশাল: বিএনপির কেন্দ্রীয় এক নেতার সহযোগীতায় উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক, ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদকের স্বাক্ষর জাল করে দলীয় মনোনয়ন বাগিয়ে নেয়া হয়েছে। পরবর্তীতে ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থীর সাথে মোটা অংকের টাকা লেনদেনের কারণে সেই মনোনয়নপত্র জমা দেয়া হয়নি বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ঘটনাটি জেলার আগৈলঝাড়া উপজেলার গৈলা মডেল ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনের। এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন উপজেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দরা।

সোমবার রাতে উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি আব্দুল লতিফ মোল্লা স্বাক্ষরিত দলীয় প্যাডে দেয়া প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে, উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এসএম আফজাল হোসেন, গৈলা ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতি শামচুল আলম মঞ্জু, সাধারণ সম্পাদক আজাদ মোল্লা ও সাংগঠনিক সম্পাদক আনিচুর রহমান বাচ্চুর স্বাক্ষর জাল করে সুপারিশকৃত কাগজ জমা দিয়ে কেন্দ্র থেকে গৈলা মডেল ইউনিয়ন পরিষদের উপ-নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে হেমায়েত আকনকে দলীয় মনোনয়ন এনে দিয়েছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা আকন কুদ্দুসুর রহমান।

প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে আরও উল্লেখ করা হয়, জালিয়াতির মাধ্যমে মনোনয়ন বাগিয়ে আনার পর বরিশাল জেলা উত্তর বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক আবুল হোসেন লাল্টুর মধ্যস্থতায় উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এসএম আফজাল হোসেন, উপজেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ও বিএনপির মনোনীত প্রার্থী হেমায়েত আকন অর্থের বিনিময়ে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর সাথে সমঝোতা করে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষদিন (২৪ জুন) রিটার্নিং অফিসারের কাছে বিএনপির মনোনয়নপত্র দাখিল করেননি।

উল্টো বিএনপির প্রার্থী হেমায়েত আকন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর সাথে রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ে গিয়ে সংগঠন পরিপন্থি বক্তব্য প্রদান করেছে। এ ঘটনায় আগৈলঝাড়া উপজেলা বিএনপি ও তার সকল সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা প্রেসবিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ করেছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ