প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বরিশালে বিদ্যুতের লাইন দেয়ার নামে ঠিকাদারের বেপরোয়া চাঁদাবাজি

খোকন আহম্মেদ হীরা, বরিশাল: পল্লী বিদ্যুতের নতুন লাইন দেয়ার নামে আকবর হোসেন নামের এক ঠিকাদার গ্রাহকদের কাছ থেকে লক্ষাধিক টাকা আদায় করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি জেলার বাকেরগঞ্জ উপজেলার পাদ্রীশিবপুর ও নলুয়া ইউনিয়নের।

জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র অগ্রাধিকার প্রকল্প “ঘরে ঘরে বিদ্যুত” এর আওতায় গ্রামের প্রতিটি ঘরে বিদ্যুত পৌঁছে দেয়ার আওতায় পাদ্রীশিবপুর ও নলুয়া ইউনিয়নে প্রকল্পের টেন্ডার আহবান করা হয়। এতে বরিশালের পল্লী বিদ্যুতের ঠিকাদার আকবর হোসেন উক্ত প্রকল্পের কাজের টেন্ডার পান। সিডিউলে খুঁটি বসানো থেকে শুরু করে ঘরে ঘরে বিদ্যুতের সংযোগ দেয়াসহ সকল কাজ সম্পূর্ণ বিনা খরচে করার কথা রয়েছে। সকল নিয়মকে বৃদ্ধাঅঙ্গুলি দেখিয়ে ঠিকাদার আকবর হোসেন ও তার সহকারী মনির হোসেন বিদ্যুতের খুঁটি বসানোর নামে পাদ্রীশিবপুর ইউনিয়নের বেশ কয়েকজন গ্রাহকের কাছ থেকে প্রায় লক্ষাধিক টাকা আদায় করেছেন।

পাদ্রীশিবপুর গ্রামের বাসিন্দা ফোরকান হাওলাদার, শুক্কুর হাওলাদার, দুলাল গোমেজ, আবুয়াল হাওলাদার, কাঞ্চন হাওলাদার, রাশিদা বেগম, ইউসুফ হোসেন, সাইফুল ইসলামসহ একাধিক গ্রাহকরা অভিযোগ করেন, বিদ্যুতের খুঁটি বসানোর জন্য ঠিকাদার আকবর হোসেন অফিসের খরচের কথা বলে তাদের প্রত্যেকের কাছ থেকে ছয় হাজার টাকা করে নিয়েছেন।

হেলাল আহম্মেদ নামের এক ভূক্তভোগী জানান, স্থানীয় দালাল মনির চৌকিদারের মাধ্যমে ঠিকাদার আকবর হোসেন ও তার সহযোহী মনির গ্রাহকদের লাইন দেয়ার কথা বলে প্রায় লক্ষাধিক টাকা উত্তোলন করে নিয়েছেন।

তিনি আরও জানান, ঠিকাদার আকবর হোসেন নিজেকে আওয়ামীলীগ নেতা পরিচয় দিয়ে এসব অপকর্ম করে যাচ্ছেন। তার এ অর্থ উত্তোলনের বিরুদ্ধে কেউ প্রতিবাদ করলে তাকে লাইন দেয়া হবেনা বলেও হুমকি দেয়া হয়। ভূক্তভোগীদের পক্ষে রাশিদা বেগম নামের এক গ্রাহক ঠিকাদার আকবর হোসেনের বিরুদ্ধে পল্লী বিদ্যুত সমিতির মহাব্যবস্থাপক বরাবর অভিযোগ দায়ের করেছেন। ভূক্তভোগীরা ঠিকাদার আকবর হোসেন ও তার সহযোগী মনিরের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

ঠিকাদার আকবর হোসেন অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, তিনি গ্রাহকের ঘরে বিদ্যুত পৌঁছে দেয়ার জন্য খুঁটি বসানোর কাজ করছেন। সেখানে যদি কেউ খুশি হয়ে টাকা দেয় তার কি করার আছে। বাকেরগঞ্জ পল্লী বিদ্যুতের এজিএম একেএম আলাউদ্দিন বলেন, ঠিকাদার আকবর হোসেন সাব কন্ট্রাকে কাজ ক্রয় করছেন। তার নিজের নামে কোন লাইসেন্স নেই। তাছাড়া বিদ্যুতের লাইনের প্রকল্প দেয়ার দায়িত্ব নির্বাহী প্রকৌশলীর। এ বিষয়ে আমি কিছুই জানিনা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত