প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

তুরস্কের প্রেসিডেন্টকে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন

তরিকুল ইসলাম : ফের তুরস্কের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। দ্বিতীয় মেয়াদে এই দায়িত্ব পেলেন তিনি। তুরস্কের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ানকে অভিনন্দন জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে ভোট দিয়ে দেশের সর্বোচ্চ আসনের জন্য নেতৃত্ব নির্বাচিত করায় তুরস্কের সাধারণ মানুষের প্রতিও শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেছেন তারা। সোমবার (২৫ জুন) আলাদা আলাদা অভিনন্দন বার্তায় শুভেচ্ছা জানান রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী। রাষ্ট্রপতি তার অভিনন্দন বার্তায় বলেন, তুরস্কের জনগণ আবারও আপনাকে নির্বাচিত করায় খুব খুশি হয়েছি। এটি আপনার দৃঢ় নেতৃত্বের প্রতিফলন। বিবৃতিতে আরও বলা হয়, দু’দেশের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক ইতিহাস, সংস্কৃতি, বিশ্বাস এবং ঐতিহ্যের ওপর দাঁড়িয়ে আছে যা আরো প্রসারিত হবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার অভিনন্দন বার্তায় বলেন, মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা মুসলিম রোহিঙ্গাদের জন্য আপনার ব্যক্তিগত পদক্ষেপ ও সহযোগীতা স্মরণযোগ্য। আমরা আশা করি, ভ্রাতৃপ্রতিম তুর্কি জনগণ রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফেরাতে সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে। নির্বাচনে এরদোয়ানের নেতৃত্বাধীন ক্ষমতাসীন দল ইসলামপন্থী একে পার্টি ও এর জোট মিত্ররা পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছেন। এরদোয়ান ৫৩ শতাংশ ভোট পেয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মুহাররেম ইনজি পেয়েছেন ৩১ শতাংশ ভোট। বিজয়ী হওয়ার পর সোমবার দলের কার্যালয়ের বারান্দা থেকে জনগণের উদ্দেশে এক ভাষণে এরদোয়ান বলেন, ‘আমার ৮ কোটি ১০ লাখ জনগণের প্রত্যেকে এই বিজয়ের অংশীদার।’ এদিকে ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানিসহ ইসলামিক দেশের নেতারা ইতিমধ্যেই নতুন প্রেসিডেন্টকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। সংখ্যাগরিষ্ঠ জনগণের সমর্থন পাওয়ায় রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনও অভিনন্দন জানিয়েছেন এরদোয়ানকে। নির্বাচনে এই জয়ের মাধ্যমে আরও পাঁচ বছর তুরস্ক শাসন করার সুযোগ পেলেন এরদোয়ান। তুরস্কের নতুন সংবিধান অনুসারে তিনি ২০২৩ সালের পর ফের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার সুযোগ পাবেন, তখন জয়ী হলে ২০২৮ পর্যন্ত তিনিই তুরস্কের প্রেসিডেন্ট থাকবেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত