প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কাজ করবে রোবট, বই পড়ে টাকা পাবেন মানবকর্মীরা

আসিফুজ্জামান পৃথিল : নতুন ধরণের একটি বার্গার রেস্টুরেন্ট চালু হতে যাচ্ছে সানফ্রান্সিসকোয়। যেখানে মানুষ নয়, বার্গার বানাবে একটি রোবট। কিন্তু মানব-কর্মীরাও থাকছে রেস্টুরেন্টটিতে। যখন রোবটটি বার্গার বানাবে কখনও ঘন্টায় ১৬ ডলার পারিশ্রমিক পাবেন এই কর্মীরা। তবে এসময় বসে থাকলে চলবেনা। এর বিনিময়ে তাদের পড়তে হবে শিক্ষামূলক বইপত্র।

বার্গার বানানোর কারিগর এই রোবটটির নাম রাখা হয়েছে ক্রিয়েটর। রেস্টুরেন্টটির কেন্দ্রে স্থাপিত রোবটটি প্রতি ঘন্টায় ১৩০টি বার্গার বানাতে সক্ষম। এবং রোবটটি বার্গার বানানোর প্রতিটি ধাপ সম্পন্ন করবে কারো সাহায্য ছাড়াই। প্রতিটি বার্গার খেতে একজন গ্রাহককে পরিশোধ করতে হবে মাত্র ৬ ডলার। সেপ্টেম্বরে রেস্টুরেন্টটি উদ্বোধনের কথা রয়েছে। তবে রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষ এর আগেই টিকেটের বিনিময়ে রোবটটির কাজ দেখার সুযোগ করে দিচ্ছে। ইতিমধ্যেই জুলাই মাসের সকল টিকেট বিক্রি হয়ে গেছে।

শুধু উৎপাদন নয় বার্গারের অর্ডারও নেবে রোবট ওয়েটারেরা। এদিকে রোবটগুলিতে কোন কারিগরি ত্রুটি দেখা দিলে মানব-কর্মীরাই খাবার পরিবেশন করবেন। তবে কর্মঘন্টার কমপক্ষে ৫ শতাংশ সময় তাদের শিক্ষামূলক বই পড়ে কাটাতে হবে। রোবটটি বানিয়েছেন আলেক্সান্দ্রোস ভারদাকোসতাস।

তিনি ২০১২ সালে একটি সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন এই রোবটটির কারণে তার কোম্পানির বছরে ৯ লাখ ডলার প্রশিক্ষণ এবং মজুরি বাবদ বেঁচে যাবে। তিনি তখন বলেছিলেন, ‘আমাদের যন্ত্রটি কর্মীদের আরো দক্ষ করার জন্য তৈরী করা হয়নি। এটা তাদের পুরোপুরি বাতিল করার জন্য বানানো হয়েছে।’ এর ৬ বছর পর এসে তিনি নিজের দর্শন পুরোপুরি পাল্টে ফেলেছেন। এখন তিনি মানব কর্মীদের বাতিলের বদলে তাদের আরো সুযোগ দেবার পক্ষে।

এই সম্পর্কে তিনি ফোর্বসকে বলেন, ‘এটি আমার ভুল সিদ্ধান্ত ছিলো। এখন আমরা মনে কনি আমরা কোনভাবেই মানুষকে বাদ দিয়ে ম্যাশিনের উপর নির্ভর করতে পারবো না। ভবিষ্যতের পৃথিবী সহজ করবে যন্ত্র। মানুষের কর্মদক্ষতাও বাড়াবে তারা। তবে তাদের আরো সৃজনশীল এবং সামাজিক হতে হবে।’ – বিজনেস ইনসাইডার

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত