প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

খুলনায় হোটেল থেকে যুবকের মরদেহ উদ্ধার, আটক ৪

শরীফা খাতুন শিউলী, খুলনা: খুলনায় একটি আবাসিক হোটেল থেকে হাত-পা বাঁধা অজ্ঞাত পরিচয়ের (৩০) এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার বেলা সাড়ে ৩টায় খুলনা সদর থানা পুলিশ মহানগরীর পিকচার প্যালেস মোড়স্থ আজমল প্লাজার আজমল হোটেল থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে। এ ঘটনায় সন্দেহজনক আচরণের কারণে হোটেল মালিকের ছেলে ও ম্যানেজারসহ ৪জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ।

খুলনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হুমায়ুন কবির জানান, স্থানীয় মানুষের কাছে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। এরপর হোটেলের একটি কক্ষের খাটের নিচে একজন ব্যক্তির মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। ধারনা করা হচ্ছে ২/৩ দিন আগে এ হত্যাকান্ড হয়েছে। নিহতের হাত পা বাঁধা এবং মুখ ও পুরুষাঙ্গ পোড়ানো অবস্থায় রয়েছে। এখনও পর্যন্ত তার পরিচয় পাওয়া যায়নি বলে জানান তিনি।

খুলনা সদর থানার সেকেন্ড অফিসার উপ-পরিদর্শক (এসআই) টিপু সুলতান জানান, শনিবার (২৩ জুন) এক যুবক ও এক যুবতী নগরীর পিকচার প্যালেস মোড়স্থ আজমল প্লাজার পঞ্চম তলার আজমল হোটেলের ৫০২ নম্বর কক্ষে ওঠেন। কিন্তু হোটেল রেজিস্ট্রারে তাদের কোন নাম-ঠিকানা, তথ্য লিপিবদ্ধ নেই। এ কারণে হোটেল মালিকের ছেলে এবং ম্যানেজারসহ ৪জনকে আটক করা হয়েছে।

তিনি জানান, যুবতীর কোন সন্ধান মেলেনি। নিহত যুবকের দুই হাত ও দুই পা বাঁধা এবং মুখ ও পুরুষাঙ্গ আগুনে ঝলসে দেওয়া। পরকীয়ার কারণে এ ঘটনা ঘটতে পারে বলে ধারণা করছেন তিনি।
হোটেল সূত্রে জানা গেছে, ওই যুবক-যুবতী স্বল্প সময় বিশ্রাম নেওয়ার জন্য হোটেলে ওঠেন। যে কারণে তাদের নাম-ঠিকানা রাখা হয়নি। কিন্তু তারা আর দরজা না খোলায় সন্দেহ দেখা দেয়। বিষয়টি পুলিশকে জানানো হলে সোমবার পুলিশ দরজা ভেঙ্গে যুবকটির মরদেহটি উদ্ধার করে।

এর আগে সোমবার দুপুর ১২ টায় মহানগরীর আড়ংঘাটা বাইপাস সড়কের বড়ই তলার একটি মাছের ঘের থেকে অজ্ঞাত পুরুষের (৫০) বস্তাবন্দি মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

আড়ংঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী রেজাউল করিম বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। মরদেহের কপালে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত