প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

সরকারের উচ্চপর্যায়ের কেউ আলাপ-আলোচনা করেনি

অধ্যক্ষ গোলাম মাহমুদুন্নবী ডলার : প্রেসক্লাবের সামনে দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের নন-এমপিওভুক্ত শিক্ষকরা অনশনে আছেন এবং অনেকে আমাদের দাবীর সাথে একমত কিন্তু এখানে নেই নানান কারণে। ২০০৬ সাল  থেকে আমরা আন্দোলন করে আসছি। এখন পর্যন্ত এই আন্দোলন আমাদের ২৭তম পর্যায়ের আন্দোলন। গত ৫ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আশ্বাসে আমরা আন্দোলন স্থগিত করে ঘরে ফিরে গিয়েছি। এরপর সরকারের বিভিন্ন পর্যায় থেকে আমাদের বলা হয়েছে, নতুন অর্থবছরে নতুন বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করা হবে। অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ২০১৮-১৯ অর্থবছরের যে বাজেট প্রস্তাব করেন, সেখানে তিনি নতুন এমপিওভুক্তির বিষয়ে সুস্পষ্ট কিছু বলেননি।

যদিও শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জন্য যে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে, তা থেকে পর্যায়ক্রমে এমপিওভুক্ত করা হবে। কিন্তু আমরা শিক্ষামন্ত্রীর এরকম বার বার আশ্বাসে বিশ্বাসী নই। আমরা হতাশ।  এই প্রেক্ষাপটে পরিবার-পরিজন, স্ত্রী-সন্তানদের রেখে আমরা  রাজপথেই ঈদের নামাজ আদায় করি। এবারের বাজেটে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দুই বিভাগের জন্য ৫৩ হাজার ৫৪ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এটি  জাতীয় বাজেটে খাতওয়ারি দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বরাদ্দ। তবুও আমাদের সাথে সরকারের কোন উচ্চ পর্যায়ের কেউ আলাপ-আলোচনা করেনি। আমরা গত ১০ জুন  থেকে আন্দোলন শুরু করেছি। এ আন্দোলন চলবে যতদিন সরকার আমাদের দাবি মেনে না নিবে।

পরিচিতি : সভাপতি, নন এমপিও শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশন / মতামত গ্রহণ : মো.এনামুল হক এনা / সম্পাদনা :মোহাম্মদ আবদুল অদুদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত