প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

ব্রিটেন সফরে যা যা করবেন ট্রাম্প

লিহান লিমা: জুলাইয়ের দ্বিতীয় সপ্তাহে ফার্স্ট লেডি মেলানিয়াকে সঙ্গে নিয়ে ব্রিটেন সফরের কথা রয়েছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের। ১২ জুলাই বৃহস্পতিবার ট্রুাম্প লন্ডন থেকে হেলিকাপ্টারের করে স্ট্যানস্টেডে আসবেন। সেখানে মার্কিন রাষ্ট্রদূতের বাসভবন ‘রিজেন্ট পার্ক’ এ অবস্থান করবেন তিনি। রাতে বেলেনহেইম প্যালেসে সারবেন নৈশভোজ।

১৩ জুলাই ট্রাম্প চেকারে গিয়ে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে এর সঙ্গে সাক্ষাত করবেন এবং সংবাদ সম্মেলন করবেন। এই সময় মেলানিয়া কোন চ্যারিটি সংস্থা বা শিশু হাসপাতাল পরিদর্শন করবেন। এর মার্কিন প্রতিনিধিদল সামরিক ঘাঁটি পরিদর্শন ও উইন্ডসর ক্যাসেলে রাজপরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দেখা করবেন।  ১৪ জুলাই ট্রাম্প স্কটল্যান্ডের টার্নবেরি গলফ কোর্স পরিদর্শনে যাবেন। ওইদিনই যুক্তরাষ্ট্রে ফিরবেন তিনি।

এমনিতেই বিক্ষোভ, আন্দোলন ও হামলার শঙ্কায় দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকেই ট্রাম্পের ব্রিটেন সফরসূচী পিছু হটেছে বারবার। তাই এবারের সফর যাতে কোন ভাবেই বাধাগ্রস্ত না হয় সে বিষয়ে কড়া নজর ব্রিটিশ সরকারের।

ডেইলি মেইলের খবরে বলা হয়, ট্রাম্পের সফরে বিক্ষোভ ও আন্দোলন ঠেকাতে কাজ করবেন ১০ হাজার পুলিশ ও এসএএস। ট্রাম্প ও ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া যখন গাড়িতে থাকবেন, তখন ৪০টি গাড়ি এবং মোটরসাইকেলে আমর্ড পুলিশ তাদের নিরাপত্তা বিধান করবে। তবে সম্প্রতি একের পর এক সহিংস হামলার শিকার হওয়া ব্রিটেনের প্রতিটি স্থানে নিরাপত্তা নিশ্চিত করা কঠিন বলে মনে করা হচ্ছে। এই বছরই লন্ডনের ৭৭টি স্থানকে হামলার জন্য সন্দেহভাজন বলে চিহ্নিত করা হয়েছে। রেকর্ড সংখ্যাক ব্রিটিশ পুলিশ মোতায়েন থাকা সত্ত্বেও মার্কিন প্রেসিডেন্টের সঙ্গে থাকবে ব্যক্তিগত নিরাপত্তা টিম। নিজস্ব সিক্রেট সার্ভিসের সদস্যসহ তিনি বোম প্রুফ ক্যাডিলাক ( দ্য বিস্ট) উড়িয়ে নিয়ে আসবেন। ট্রাম্পের এয়ার ফোর্স ওয়ান ‘দ্য বিস্ট’ সহ দুই তা তারও বেশি হেলিকাপ্টারকে বহন করতে পারে।

তবে এত নিরাপত্তা ব্যবস্থা সত্ত্বেও প্রতিবাদকারীরা তাদের বিক্ষোভের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। ১৩ জুলাই প্রায় ৫৩ হাজার মানুষ ‘স্টপ ট্রাম্প’ বিক্ষোভে অংশ নিবেন বলে অনলাইনের মাধ্যমে জানা যায়। ডেইলি মেইল।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত