প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘অনেক জার্মানই টুর্নামেন্ট থেকে আমাদের বিদায় দেখার অপেক্ষায় ছিলেন’

স্পোর্টস ডেস্ক: দল জয়ে ফেরার পরই সমালোচকদের জবাব দেয়া শুরু করেছেন জামার্নির ফুটবলাররা। সুইডেনের বিরুদ্ধে অতিরিক্ত সময়ের গোলে নাটকীয় জয়ের পর টনি ক্রুজ ও মার্কো রিউস বলেছেন, অনেক জার্মানই বিশ্বকাপ থেকে তাদের বিদায় চেয়েছিলেন। ওই সমালোচকদের বিশ্বাসই ছিল, এবার প্রথম রাউন্ড থেকে বিদায় হবে বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের।

নিজেদের প্রথম ম্যাচে মেক্সিকোর কাছে হারের পর থেকেই কাঠগড়ায় ছিলেন জার্মান ফুটবলাররা। সুইডেন ম্যাচেও প্রথম গোল হজম করে শঙ্কা জাগিয়ে ছিল ছিটকে যাওয়ার। কিন্তু প্রথমে রিউসি এবং পরে ক্রুজের গোলে ২-১ ব্যবধানের জয় নিশ্চিত করে বাভারিয়ানরা। টিকে থাকে তাদের বিশ্বকাপ মিশনও।

ম্যাচ শেষে ক্রুজ বলেন, ‘আমরা জানি, বিশ্বকাপ থেকে আমরা ছিটকে গেলে অনেক জার্মানই খুশি হতেন। কিন্তু তাদের কাজটা আমরা সহজে হতে দেব না। আমরা সহজে রাস্তা ছাড়ব না।’
ক্রুজ যেমন শেষ মুহূর্তে গোল করে দল জিতিয়েছেন। তেমনি প্রথম গোল করে সমতা ফেরান রিউস। এই জয় জার্মান সমালোচকদের মুখ বন্ধ করে দিয়েছে বলে মত বরুসিয়া ডর্টমুন্ড তারকার। সেই সঙ্গে সমালোচকদের ভুলও প্রমাণ করেছেন তারা।

রিউসের ভাষায়, ‘অনেক জার্মানই টুর্নামেন্ট থেকে আমাদের বিদায় দেখার অপেক্ষায় ছিলেন। কিন্তু আমি মনে কির, সুইডেন এগিয়ে যাওয়ার পরও আমরা আমাদের স্পিরিটটা দেখিয়েছি।’

‘অবশ্যই প্রথমে আমরা পিছিয়ে ছিলাম। কিন্তু আমরা দারুণভাবে ফিরে এসেছি। যা খেলেছি তাতে আরও এক বা দুটি গোল বেশি করা উচিত ছিল। তবে আমাদের স্থির অবস্থার শেষ হয়েছে, জয়ে ফিরেছি এবং এটা অব্যাহত থাকবে’,-যোগ করেন রিউস।

সতীর্থ ক্রুজের ভূয়সী প্রশংসাও করেছেন রিউস। অথচ ক্রুজের ভুলেই প্রথম গোল খেতে হয়েছিল জার্মানিকে। ম্যাচ শেষে অবশ্য স্বীকারও করেছেন রিয়াল মাদ্রিদ মিডফিল্ডার, ‘সুইডেনের প্রথম গোলটা আমার ভুলেই। এর দায় আমার। কিন্তু এটা শেষ পর্যন্ত সংশোধন করা হয়েছিল, ঠিক? (হাসি)’

সুইডেন ম্যাচে অসাধারণ ফুটবল খেলেছেন ক্রুজ। জেরম বোয়ার্টেং লালকার্ড দেখার পর গোলের আগে টানা ১৫টি পাস দেন তিনি। জার্মানদের মোট ৭৪৪ পাসের মধ্য ৮৬% ছিল ঠিক। এর মধ্যে ক্রুজ একাই ১২৮টিতে ১১৭টি ঠিক পাস দেন। রাশিয়ায় চলতি বিশ্বকাপে এখনও পর্যন্ত যেটা সর্বোচ্চ।

ম্যাচের শেষে ক্রুজের প্রশংসা করে তাকে জার্মানির জয়ের প্রতীক হিসেবে উল্লেখ করেছেন কোচ জোয়াকিম লো।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত