প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রাষ্ট্রায়ত্ত ৬ ব্যাংকের পরিচালন মুনাফার লক্ষ্যমাত্রা ৪০০০ কোটি টাকা

সোহেল রহমান: ব্যাংক পরিচালনার ক্ষেত্রে আগামী অর্থবছরে ছয়টি রাষ্ট্রায়ত্ত বাণিজ্যিক ব্যাংককে প্রায় ৪ হাজার কোটি টাকা পরিচালন মুনাফা অর্জন করতে হবে। পাশাপাশি তহবিল ব্যয় কমিয়ে আনতে স্বল্পব্যয়ী আমানতের হার বাড়ানো এবং পরিচালনা ব্যয় কমাতে লোকসানী শাখার সংখ্যা কমিয়ে আনার দিয়েছে সরকার।

সরকারের সঙ্গে সম্পাদিতব্য বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তির আওতায় এ লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ।

লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী, আগামী অর্থবছরে ছয়টি (সোনালী, জনতা, অগ্রণী, রূপালী, বেসিক ও বিডিবিএল) রাষ্ট্রায়ত্ত বাণিজ্যিক ব্যাংককে মোট ৩ হাজার ৯৭৫ কোটি টাকা পরিচালন মুনাফা অর্জন করতে হবে। এর মধ্যে সোনালী ব্যাংককে ১ হাজার ৪০০ কোটি টাকা, জনতা ব্যাংককে ১ হাজার ২০০ কোটি টাকা, অগ্রণী ব্যাংককে ৮০০ কোটি টাকা, রূপালী ব্যাংককে ৪২৫ কোটি টাকা, বিডিবিএল-কে ১০০ কোটি টাকা ও বেসিক ব্যাংককে ৫০ কোটি টাকা পরিচালন মুনাফা অর্জন করতে হবে।

পাশাপাশি ব্যাংকগুলোকে স্বল্পব্যয়ী আমানতের হার বাড়াতে বলা হয়েছে। আগামী অর্থবছরে সোনালী ব্যাংকের স্বল্পব্যয়ী আমানতের হার বাড়িয়ে ৬২ দশমিক ৫০ শতাংশ, জনতা ব্যাংকের স্বল্পব্যয়ী আমানতের হার বাড়িয়ে ৫১ শতাংশ, অগ্রণী ব্যাংকের স্বল্পব্যয়ী আমানতের হার বাড়িয়ে ৫৫ শতাংশ, রূপালী ব্যাংকের স্বল্পব্যয়ী আমানতের হার বাড়িয়ে ৪৬ শতাংশ, বেসিক ব্যাংকের স্বল্পব্যয়ী আমানতের হার বাড়িয়ে ২৫ শতাংশ ও বিডিবিএল-এর স্বল্পব্যয়ী আমানতের হার বাড়িয়ে ৩৫ শতাংশে উন্নীত করতে বলা হয়েছে।

এছাড়া ছয়টি ব্যাংককে তাদের লোকসানী শাখার সংখ্যা কমিয়ে ৩৭৭টি-তে নামিয়ে আনতে বলা হয়েছে। এর মধ্যে সোনালী ব্যাংকের লোকসানী শাখা কমিয়ে ২০০টিতে, জনতা ব্যাংকের লোকসানী শাখা কমিয়ে ৬০টিতে, অগ্রণী ব্যাংকের লোকসানী শাখা কমিয়ে ৬০টিতে, রূপালী ব্যাংকের লোকসানী শাখা কমিয়ে ৩০টিতে, বেসিক ব্যাংকের লোকসানী শাখা কমিয়ে ১২টিতে ও বিডিবিএল-এর লোকসানী শাখার সংখ্যা কমিয়ে ১৫টিতে নামিয়ে আনতে বলা হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত