প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

তেলের উৎপাদন বাড়াবে ওপেক

লিহান লিমা: তেলের উৎপাদন বাড়ানোর বিষয়ে একমত হয়েছে শীর্ষ তেল রফতানিকারক দেশগুলোর সংগঠন (ওপেক) ও অন্য প্রধান দেশগুলো। শুক্রবার উৎপাদন বাড়ানোর ইস্যুতে ঐক্যমতের পর নতুন চুক্তি করতে শনিবার রাশিয়ায় জড়ো হন তারা।

বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম বাড়াতে ২০১৭ সালে পণ্যটির উত্তোলন কমাতে ওপেক একটি চুক্তি করে। চুক্তির মেয়াদ চলতি বছরের ডিসেম্বর পর্যন্ত। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে জ্বালানি তেলের দাম বেড়ে ব্যারেল প্রতি ৮০ ডলার ছাড়িয়ে যায়। শুক্রবার ব্রেন্ট ক্রুড এর মূল্য প্রতি ব্যারেলে ২.৫ ডলার বা ৩.৪ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। তাই সরবরাহ বাড়াতে এবার আবার উত্তোলন বাড়াতে যাচ্ছে দেশগুলো। গতকাল শুক্রবার অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় ওপেক-নন ওপেক দেশগুলোর জ্বালানিমন্ত্রীদের বৈঠকে রাশিয়ার প্রস্তাব অনুযায়ী চুক্তি সংশোধনে একমত হয় দেশগুলো। এই সিদ্ধান্তের ফলে প্রতি দিন ১০ লাখ ব্যারেল বা বৈশ্বিকভাবে ১ ভাগ তেল সরবরাহ বৃদ্ধি পাবে।

ওপেক তেলের উৎপাদন বৃদ্ধির ঘোষণা দেয়ার পর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প উল্লাস প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেন, ‘আশা করছি ওপেক তার উৎপাদন ক্ষমতা বাড়াবে। সেই সঙ্গে তেলের মূল্যও কমানো প্রয়োজন। যদিও ওপেকের তৃতীয় বৃহত্তম উৎপাদনকারী দেশ ইরান ট্রাম্পের তেলের মূল্য কমানোর আহ্বান প্রত্যাখান করার জন্য ওপেকের কাছে দাবি জানায়। দেশটি জানায়, সম্প্রতি ইরান ও ভেনেজুয়েলার ওপর আর্থিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে তিনি তেলের মূল্য বৃদ্ধির পদক্ষেপই নিয়েছেন।

এর আগে যুক্তরাষ্ট্র, চীন এবং ভারত বৈশ্বিক অর্থনীতিক প্রবৃদ্ধি চলমান রাখতেও তেল সংকট রুখতে তেল উৎপাদনকারী দেশগুলোকে উৎপাদন বৃদ্ধির আহ্বান জানায়। রয়টার্স ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ