প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

একাদশের তৃতীয় ধাপে ভর্তির আবেদন কাল
বঞ্চিত ১ লাখ ৮ হাজার শিক্ষার্থী সুযোগ পাচ্ছে

তরিকুল ইসলাম সুমন: একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন করেও ভর্তি থেকে বঞ্চিত রয়েছেন ১ লাখ ৮ হাজারের বেশি শিক্ষার্থী। এসব শিক্ষার্থীরা প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপে ভর্তির জন্য আবেদন করেছিলেন। অপরদিকে আজ ভর্তি বঞ্চিতরা তৃতীয় ধাপে ভর্তির আবেদন করার সুযোগ পাবেন। ঢাকা শিক্ষা বোর্ড সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য সারাদেশে প্রথম ধাপে মোট ১৩ লাখ ১৯ হাজার ৬৭৫ জন শিক্ষার্থী আবেদন করলেও ৯৩ হাজার ৫ শিক্ষার্থীর আবেদনে সমস্যা থাকায় তারা তালিকা ভুক্ত হতে পারেনি। ফলে আবেদনকারীর সংখ্যা ছিল ১২ লাখ ২৬ হাজার ৬৭০ জন। তাদের মধ্যে মোট ৯ লাখ ৩০ হাজার ৪৯২ জন ভর্তি নিশ্চিত করেছেন।

কর্মকর্তারা জানান, একাদশ শ্রেণির প্রথম মেধা তালিকা প্রকাশের পর প্রায় ৬২ হাজার শিক্ষার্থীর কলেজ মনোনীত না হওয়ায় ভর্তি থেকে বঞ্চিত ছিলো। ২১ জুন রাতে দ্বিতীয় ধাপের ভর্তির মেধা তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। এ তালিকায় নতুন করে প্রায় আড়াই লাখ শিক্ষার্থী ভর্তির জন্য মনোনীত হলেও ৪৬ হাজার ৫৩১ জন পছন্দের কলেজে ভর্তি হতে পারছে না। মেধা তালিকায় তাদের নাম না আসায় তারা ভর্তি থেকে বঞ্চিত থাকছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের একজন পরিদর্শ জানান, প্রথম ধাপে মোট ১৩ লাখ ১৯ হাজার ৬৭৫ জন শিক্ষার্থী আবেদন করে। সেখান থেকে মেধা তালিকায় ১২ লাখ ৩৮ হাজার ২৫২ জনকে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য বিভিন্ন কলেজে মনোনীত করা হয়। দ্বিতীয় মেধা তালিকায় কলেজে ভর্তি হতে পারছে না সাড়ে ৪৬ হাজারের বেশি শিক্ষার্থী। ২৪ জুন তৃতীয় পর্যায়ে আবেদন করতে পারবে। ২৫ জুন দ্বিতীয় মেধার মাইগ্রেশনের ফল ও তৃতীয় মেধা তালিকার ফল প্রকাশ করা হবে।

তিনি আরো বলেন, তৃতীয় মেধার শিক্ষার্থীদের নিশ্চিত করতে হবে ২৬ জুন। তৃতীয় পর্যায়ের মনোনীত শিক্ষার্থীদের ভর্তি প্রক্রিয়া চলবে ২৭ থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত। আর ক্লাস শুরু ১ জুলাই থেকে। তবে বিলম্ব ফি দিয়ে ভর্তির সুযোগ থাকছে জুলাইয়ের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত। তবে সারাদেশে পর্যাপ্ত আসন রয়েছে।

ঝরে পড়ার প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন, প্রতি বছর কিছু শিক্ষার্থী ঝরে পড়ে। কিছু বিয়ে হয়ে যায়, কিছু বিদেশ চলে যায়, কিছু পড়ালেখা ছেড়ে দেয়। এ কারণে আবেদন অনুযায়ী সকল শিক্ষার্থী ভর্তি হয় না।
উল্লেখ্য, মাধ্যমিক ও সমমানের পরীক্ষায় এবার ১৫ লাখ ৭৬ হাজার ১০৪ শিক্ষার্থী পাস করেছে। আর কলেজে ভর্তি হতে আবেদন করেছে ১৩ লাখ ১৯ হাজার ৬৭৫ জন। এর মধ্যে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ১ হাজার ৫৯৩ জন শিক্ষার্থী রয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ