প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আ.লীগের সবচেয়ে বড় অবদান মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্ব দেওয়া : আনোয়ার হোসেন

হ্যাপী আক্তার : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপক ইতিহাসবিদ সৈয়দ আনোয়ার হোসেন বলেছেন, আওয়ামী লীগের সবচেয়ে বড় অবদান মুক্তিযুদ্ধের নেতৃত্ব দেওয়া। আর একটি বড় অবদান বাংলাদেশ নির্মাণ করা। আওয়ামী লীগ জনগণকে যা দিয়েছে, তুলনামূলক পর্যালোচনায় তার চেয়ে বেশি কেউ দিতে পারেনি।

বেসরকারি একটি টেলিভিশন চ্যানেল ইন্ডিপেনডেন্ট দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় আনোয়ার হোসেন বলেন, বাঙালির স্বার্থ রক্ষার অনুপ্রেরণার চিন্তা-চেতনা, ভাবনা ও ধারণা ছিল। তার প্রমাণ দলে তারা যে ধারা তৈরি করেছিল তার মধ্যে বাংলাদেশের স্বার্থ সংরক্ষণ সংক্রান্ত।

আজ আওয়ামী লীগের ৬৯তম বর্ষপূর্তি। নানা উত্থান-পতন ও চড়াই-উৎরাইয়ের সাক্ষী এ দলটি যাত্রা শুরু করে ১৯৪৯ সালের ২৩শে জুন।

ভারত ভাগের পরপরই রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, সাংস্কৃতিকসহ সব অধিকার আবারও কুক্ষিগত হয় পূর্ব বাংলার মানুষের। এবার ব্রিটিশদের জায়গায় দৃশ্যপটে আসে পাকিস্তানিরা। মোহভঙ্গ হয় এ অঞ্চলের নেতাদের। এমনই এক প্রেক্ষাপটে তৈরি হয় নিজস্ব দল গঠনের তাগিদ। মুসলিম লীগের প্রগতিশীল একটি অংশের উদ্যোগে, ১৯৪৯ সালের ২৩শে জুন কে এম দাস লেনের রোজ গার্ডেনে আত্মপ্রকাশ ঘটে আওয়ামী লীগের। সে সময় দলটির নাম ছিলো পূর্ব পাকিস্তান আওয়ামী মুসলিম লীগ। ১৯৫৫ সালে এসে নাম থেকে বাদ দেয়া হয় মুসলিম শব্দটি।

দীর্ঘ এই পথচলায় অর্থনৈতিক উন্নয়ন, মানবতাবিরোধী অপরাধ ও বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার, পদ্মা সেতুর কাজ এগিয়ে নেয়াসহ নানা ক্ষেত্রে আওয়ামী লীগের সাফল্যের পাল্লাই ভারী মনে করছেন দলটির নেতা ও ইতিহাসবিদেরা।

তবে দলটির নীতিনির্ধারকদের মতে সময়ের প্রয়োজনেই কিছু ক্ষেত্রে কৌশলী হতে হয়েছে আওয়ামী লীগকে। নেই উল্লেখযোগ্য কোন ব্যর্থতা।

আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, আর্থ-সামাজিক অবকাঠামো দেশকে এগিয়ে নিয়েছে। অর্থনীতির সকল ক্ষেত্রে বাংলাদেশ অভূতপূর্ব সফলতা অর্জন করেছে।

এসময় তিনি আরো বলেন, সাম্প্রদায়িকতায় আওয়ামী লীগ কোনো দিনও ছাড় দেয়নি। আগামী দিনেও দিবে না।
তবে রাষ্ট্রের মূল প্রতিষ্ঠানগুলোকে শক্তিশালী করা, নতুন নেতৃত্বসহ নানা ক্ষেত্রে দলটির ভূমিকায় প্রশ্ন তুলছেন সৈয়দ আনোয়ার হোসেন। তিনি বলেন, প্রত্যেক সংশোধনীতেই রাষ্ট্র ধর্ম এবং ধর্ম নিরপেক্ষতা পাশাপাশি অবস্থান করছে। এটি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের অনুসারি নয়।

বঙ্গবন্ধু হত্যার ২১ বছর পর ১৯৯৬ সালে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে প্রথম ক্ষমতায় আসে আওয়ামী লীগ। পরে ২০০৮ সালে আবারও দায়িত্ব এসে এখনও সরকার পরিচালনায় রয়েছে দলটি। বাংলাদেশেকে উন্নয়নশীল রাষ্ট্রে উন্নীত করে দিচ্ছে ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত রাষ্ট্রে পরিণতের প্রতিশ্রুতি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত