প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

গরিব মানুষের জন্য ঈদ আনন্দ আনতে পারেনি

রাজেকুজ্জামান রতন : এবারের ঈদে একটা বড় বিষয় ছিলো যে, নন-এমপিও শিক্ষক- কর্মচারীরা, তাদের বড় একটা অংশ নিয়ে প্রেসক্লাবের সামনে  তাদের ঈদ উৎযাপন করেছে। যখন ঈদে  শহরের মানুষ প্রচন্ড কষ্ট সহ্য করেও প্রিয়জনদের সাথে ঈদ করতে গ্রামে চলে যায়, সে সময় আমরা দেখেছি  শিক্ষক-কর্মচারীরা এমপিও ভুক্তির আশায় রাস্তায় অবস্থান নেয়। টাকাটা যেন তাদের জন্যে বরাদ্দ হয়, এ দাবিতে প্রেসক্লাবের সামনেই ঈদের দিন অতিবাহিত করলো এবং এখনো তারা প্রেসক্লাবের  সামনেই অবস্থান করছে। রাষ্ট্র তাদের স্বীকৃতি দিয়েছে এবং তাদেরকে পাঠদানের দায়িত্ব দিয়েছে।

এখন  তাদের একটাই দাবি যে, এমপিও ভুক্ত করেছেন কিন্তু বেতন দেওয়া হয়নি। গার্মেন্টস শ্রমিকদের একটা বড় অংশ ঈদে  তাদের পরিপূর্ণ বেতন বাবদ পায়নি। ঈদ যাত্রায় আমাদের ঢাকা থেকে ৩০ লক্ষ মানুষ ঢাকার বাইরে গিয়েছে ঈদ করতে। তারা খুব কষ্টের মধ্য দিয়ে বাড়িতে গিয়েছে। ফলে ঈদ এসেছিলো একটা আনন্দের বার্তা নিয়ে কিন্তু দরিদ্র, গরীব, দুঃখী মানুষের জন্যে ঈদ আনন্দ আনতে পারে নি।  ঈদ এনেছে উৎকন্ঠা, আতঙ্ক। ফলে আমরা মনে করি যে, দেশে অর্থনৈতিক বৈষম্য থাকলে, একজন মানুষের প্রাচুর্য আর আরেকজন মানুষের অভাব থাকলে, বৈষম্যের মধ্যে ঈদ সবার মধ্যে আনন্দ নিয়ে আসে না।

আমরা মনে করি যে, ঈদের আনন্দটা উপভোগ করতে সমাজ থেকে বৈষম্যকে দূর করার পদক্ষেপ নিতে হবে । আমরা চাই সবাই যেন  ঈদের বোনাসটাও ঠিকমতো পায় । তাছাড়া ঈদ যেতে না যেতেই বাংলাদেশের এক দিক দিয়ে বন্যায় ভেসে গেছে। আমি মনে করি, ঈদ একটা সামাজিক উৎসব। সমাজের সকলের অংশগ্রহণে ঈদে আনন্দ উপভোগ করা উচিৎ।

পরিচিতি : কলামিস্ট ও কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য, বাসদ/ মতামত গ্রহণ : নৌশিন আহম্মেদ মনিরা/ সম্পাদনা : মোহাম্মদ আবদুল অদুদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত