প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভোট নিয়ে সতর্ক ইসি

ডেস্ক রিপোর্ট: গাজীপুর, রাজশাহী, বরিশাল ও সিলেট সিটি করপোরেশন ভোট নিয়ে চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। কুমিল্লা-রংপুরে সুষ্ঠু ভোটের পর খুলনা সিটির ভোটে অনিয়ম নিয়ে নানা প্রশ্নের মুখে রয়েছে সাংবিধানিক এই প্রতিষ্ঠানটি।

এ অবস্থায় চার সিটির ভোটে যাতে কোনো অনিয়ম না হয়, সেদিকে সতর্ক থাকতে মাঠ কর্মকর্তাদের বিশেষ নির্দেশনা দিয়েছে কমিশন। এ ছাড়া আগামী ২৬ জুন গাজীপুরের ভোটকে সামনে রেখে গাজীপুর সফর করেছেন সিইসিসহ অন্য নির্বাচন কমিশনাররা। এরপরে ধারাবাহিকভাবে তিন সিটিতেও সফর করবেন তারা।

ইসির কর্মকর্তারা বলছেন, খুলনা সিটিতে অস্বাভাবিক ভোটগ্রহণ, জাল ভোট ও ব্যালটে সিলসহ নানা অনিয়মের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে কমিশন। চার সিটিতে কর্মকর্তাদের সর্বোচ্চ সতর্ক থাকার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে নির্বাচন কমিশনাররা মাঠ কর্মকর্তাদের সঙ্গে সরাসরি কথাও বলেছেন। এক্ষেত্রে ভোটের আগের রাতে যাতে ব্যালটে সিল মারা ঠেকানো যায় এবং ভোটের দিন কোনোভাবেই কেউ ব্যালট ছিনতাই করতে না পারে- এজন্য বেশ কিছু নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। বেশি ঝুঁকিপূর্ণ ভোট কেন্দ্রে প্রয়োজনে সিসি টিভি স্থাপনের পরিকল্পনাও নিয়েছে কমিশন। সেই সঙ্গে ভোট সুষ্ঠু করতে প্রার্থীদের সহযোগিতা চেয়েছে নির্বাচন কমিশন। গতকাল ক্ষমতাসীন আওয়মী লীগ তিনি সিটির মেয়র প্রার্থী চূড়ান্ত করেছে। বিএনপির প্রার্থী চূড়ান্ত হলেও গাজীপুরের ভোটের ফলাফল দেখে দলটি প্রার্থী ঘোষণা দেবে। তিন সিটিতে আগামী ১০ জুলাই আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরু করতে পারবেন প্রার্থীরা।

গাজীপুরে ৬ কেন্দ্রে ইভিএম, ২৫ জুন মক ভোটিং : জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার সম্ভব না হলেও স্থানীয় নির্বাচনে এ প্রযুক্তির ব্যবহার ধীরে ধীরে বাড়ছে। রংপুর ও খুলনার পর গাজীপুরে ৬টি কেন্দ্রে ইভিএম ব্যবহার করা হচ্ছে। ইসি জানিয়েছে, ৬টি কেন্দ্রে ইভিএম ও ৩টি কেন্দ্রে সিসি টিভি স্থাপন করা হচ্ছে। যে সব কেন্দ্রে ইভিএম ব্যবহার করা হবে সেগুলো হলো ১৫৪, ১৫৫, ১৭৪, ১৭৫, ১৯১ ও ১৯২ নম্বর কেন্দ্র। ইসি জানিয়েছে, গাজীপুরে কাল ২৪ জুন পর্যন্ত ভোটারদের ইভিএম সম্পর্কে শিক্ষা দিতে ১২ জনবহুল এলাকায় ইভিএমে ভোট দান এবং জনসচেতনা তৈরি জন্য প্রদর্শনী কার্যক্রম হাতে নেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে ২৪ জুন কর্মকর্তাদের ইভিএম বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। ভোটের আগের দিন ২৫ জুন ৬ ভোট কেন্দ্রে সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত মক ভোটিং অনুষ্ঠিত হবে।

তিন সিটিতে মনোনয়নপত্র দাখিল শেষ ২৮ জুন : আগামী ৩০ জুলাই রাজশাহী, বরিশাল ও সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অংশ নিতে প্রার্থীরা ২৮ জুন পর্যন্ত মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারবেন। মনোনয়ন বাছাইয়ের তারিখ ১-২ জুলাই। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ৯ জুলাই। ১০ জুলাই প্রতীক বরাদ্দের পরে প্রার্থীরা আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরু করতে পারবেন। এরপর ভোট ৩০ জুলাই। এ ছাড়া রাজশাহী ও বরিশালে ১০ জন করে এবং সিলেট সিটি করপোরেশনে ৯ জন সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা দায়িত্ব পালন করবেন। সূত্র: বিডি প্রতিদিন

সর্বাধিক পঠিত