প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভারতীয় নৌঘাঁটি স্থাপন আটকে দিল সিসিলি পার্লামেন্ট

ডেস্ক রিপোর্ট : পূর্ব আফ্রিকার দেশ সিসিলি-তে ভারতীয় নৌবাহিনীর ঘাঁটি স্থাপনের পরিকল্পনা বাতিল করে দিয়েছে দেশটির পার্লামেন্ট।

শুক্রবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন একজন কর্মকর্তার উদ্ধৃতি দিয়ে ভারতের এনডিটিভি একথা জানায়।

ওই কর্মকর্তা জানান, দ্বীপপুঞ্জের একটি দ্বীপে ভারতীয় নৌবাহিনীকে ঘাঁটি স্থাপনের চুক্তির অনুমোদন দেয়নি সিসিলি পার্লামেন্ট।

ভারত মহাসাগরের দেশটির অ্যাসাম্পশন দ্বীপে ভারত ঘাঁটি স্থাপনের চুক্তি স্বাক্ষর করে এই বছরের জানুয়ারিতে। কিন্তু এর পরপরই সেখানকার বিরোধী দল এর বিরোধিতা শুরু করে এবং গণ আন্দোলনের নেতৃত্ব দেয়।

বিরোধীদলীয় এমপিরা মন্তব্য করেন, ব্যস্ত নৌপথের কাছে ভারতকে ঘাঁটি গড়তে দিলে সিসিলের সার্বভৌমত্ব ক্ষুন্ন হবে।

তবে সিসিলির পররাষ্ট্রমন্ত্রী ব্যারি ফাউর রয়টার্সকে বলেন, ‘সরকার এই চুক্তি পার্লামেন্টে পেশ করবে না। কারণ বিরোধী দল ইতোমধ্যেই জানিয়ে দিয়েছে তারা এটার অনুমোদন দিবে না। এতে চুক্তি বাতিল হয়েছে কিনা এই প্রশ্ন উঠবে, কিন্তু আমরা এটা সংসদেই উত্থাপন করব না।’

ভারত ইতোমধ্যেই তাদের দেশে চুক্তিটি অনুমোদন করেছে। সিসিলির প্রেসিডেন্ট ড্যানি ফাউর আগামী সপ্তাহে নয়াদিল্লিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে দেখা করবেন।

অবশ্য এর আগে ড্যানি ফাউর স্থানীয় গণমাধ্যমকে বলেছিলেন, অ্যাসাম্পশন দ্বীপে নৌঘাঁটি স্থাপনের বিষয়ে মোদির সঙ্গে কোনো আলোচনা হবে না।

তিনি বলেন, ‘আগামী বছর অ্যাসাম্পশন দ্বীপে কোস্টগার্ড সেবা দিতে আমরা নিজেরাই বাজেট বরাদ্দ করব। ওই এলাকায় সামরিক স্থাপনা থাকাটা গুরুত্বপূর্ণ।’

২০ বছর মেয়াদি চুক্তির আওতায় ভারত সেখানে একটি বিমান বন্দর ও নৌবন্দর তৈরি করতে চেয়েছিল। ভারত ও চীন ভারত মহাসাগরে শক্তি বৃদ্ধির প্রতিযোগিতায় নামার পর এই চুক্তি করা হয়।

সূত্র : পরিবর্তন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত