প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দ.এশিয়ায় বাংলাদেশের স্বাস্থ্য বাজেট সবচেয়ে কম

ডেস্ক রিপোর্ট : দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে স্বাস্থ্য বাজেটে মোট জাতীয় আয়ের সবচেয়ে কম বরাদ্দ দেয় বাংলাদেশ।

ভারতের কেন্দ্রীয় পর্যায়ের একটি সমীক্ষার উদ্ধৃতি দিয়ে ভারতের হিন্দুস্তান টাইমস ও আজকাল পত্রিকা এ খবর দিয়েছে।

মঙ্গলবার ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য এবং পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধীনে ‘সেন্ট্রাল ব্যুরো অফ হেলথ ইন্টেলিজেন্স’ তাদের ‘ন্যাশনাল হেলথ প্রোফাইল-‌২০১৮’ প্রকাশ করেছে।

ওই রিপোর্টে দেখা যাচ্ছে, স্বাস্থ্য খাতে মোট জাতীয় আয় বা জিডিপি‌র এক শতাংশের বেশি ব্যয় করে না ভারত। অথচ, কম আয়ের দেশ হিসেবে পরিচিত প্রতিবেশী নেপাল, ভুটান এবং শ্রীলঙ্কাও ভারতের থেকে অনেক বেশি বরাদ্দ দেয়।

এই অঞ্চলে ভারতের চেয়েও কম বরাদ্দ দেয় একমাত্র বাংলাদেশ। বাংলাদেশের জিডিপির ০.৪ শতাংশ স্বাস্থ্য খাতে বরাদ্দ করা হয় বলে উল্লেখ করা হয় রিপোর্টে।

স্বাস্থ্যখাতে জিডিপির কত শতাংশ বরাদ্দ করা হয় এই হিসাবে দক্ষিণ-‌পূর্ব এশিয়ার মোট ১০টি দেশের মধ্যে ভারতের স্থান নবম। আর বাংলাদেশের স্থান দশম।

আজকাল পত্রিকা জানিয়েছে, গত বাজেটে সংসদে ঢাক-‌ঢোল পিটিয়ে মোদি সরকার বিশ্বের বৃহত্তম স্বাস্থ্যবীমা শুরু করতে চেয়েছিলেন। গত বাজেটে দেশের জিডিপির মাত্র এক শতাংশ চিকিৎসা খাতে খরচ করেছে ভারত, যা ২০১৪ সালের থেকে (০.৯৮ শতাংশ) সামান্য বেশি হলেও, প্রতিবেশী দেশগুলোর তুলনায় নগণ্য।

উল্লেখ্য, স্বাস্থ্য বাজেটে দেশের জিডিপির ২.‌৫ শতাংশ খরচ করেছে ছোট্ট দেশ ভুটান। নেপাল করে ১.১ শতাংশ এবং শ্রীলঙ্কা ১.৬ শতাংশ।

অন্যদিকে, স্বাস্থ্য বাজেটে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেয় মালয়েশিয়া। তারা স্বাস্থ্য ব্যবস্থার জন্য দেশের জিডিপির ৯.‌৪ শতাংশ বরাদ্দ দেয়। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে থাইল্যান্ড। তাদের বরাদ্দের পরিমাণ ২.৯ শতাংশ।
সূত্র : পরিবর্তন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত