প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সুয়ারেজদের জার্সিতে চারটি তারা কেন!

স্পোর্টস ডেস্ক: বিশ্বকাপ জিতলে জার্সিতে ওই দল জুড়ে দেয় একটি স্টার বা তারা। এটি বিশ্বকাপের পুরানো ঐতিহ্য। যার শুরু ১৯৭০ বিশ্বকাপ থেকে। পেলের শেষ বিশ্বকাপ জয়ের পর ব্রাজিলের জার্সিতে ওঠে তারা। ওটা ছিল তাদের তৃতীয় বিশ্বকাপ জয়। এরপর আরো দু’বার জিতেছে। তাই নেইমারদের জার্সিতে শোভা পায় ৫ তারা। অন্যরা যে যে ক’বার জিতেছে ততটি তারা থাকে বুকে। কিন্তু এবারের বিশ্বকাপে লুইস সুয়ারেজদের জার্সিতে বুকের উপর চারটি তারা জ্বলজ্বল করছে কেন? একটা ধাঁধা তৈরি হয়েছে তাতে। ইতিহাস বলছে, উরুগুয়ে বিশ্বকাপ জিতেছে দু’বার। তাহলে তো দু’টি তারা থাকবে তাদের বুকে যেমন বরাবর থাকতো। তাহলে বাড়তি দুই তারকা কেন?
জবাবটা খুব কঠিন না। ১৯২৪ এবং ১৯২৮ অলিম্পিক গেমসের ফুটবলের সোনা জিতেছিল উরুগুয়ে। একালে অলিম্পিক সোনা জয়ের জন্য জার্সিতে তারা বসানোর উদাহরণ নেই। বিশ্বকাপে খেলা অলিম্পিক ফুটবল জয়ী কোনো দলের জার্সিতেই তা দেখবেন না। কিন্তু প্রাচীন ঐতিহ্যের লাতিন ফুটবল দল উরুগুয়ে তাদের নিজেদের নিয়মটাই চালু করলো এবার।
অলিম্পিকের চ্যাম্পিয়শিপ শিরোপা উরুগুয়ে জিতেছে বিশ্বকাপ টুর্নামেন্ট শুরুরও আগে। বিশ্বকাপ ইতিহাস শুরু ১৯৩০ সালে। প্রথম বিশ্বকাপ শিরোপা জিতেছিল উরুগুয়ে। এরপর ১৯৫০ সালে গিয়ে দ্বিতীয় ও এখন পর্যন্ত শেষ বিশ্বকাপ ট্রফির দেখা পায় তারা। কিন্তু ব্যাপারটা হলো বিশ্বকাপ শুরুর আগে অলিম্পিক ফুটবল কিন্তু কোনো অংশে কম আলোচনায় থাকতো না। প্রায় বিশ্বকাপের সমান মর্যাদাই পেত। যদিও তখনো অপেক্ষাকৃত তরুণ দলই খেলানোর নিয়ম ছিল। হিসেবে, অলিম্পিকের ফুটবল সোনাজয়ীরাই তখন বিশ্ব চ্যাম্পিয়নের স্বীকৃতি পেত।
১৯১৪ সালে ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফার তৃতীয় প্রেসিডেন্ট জুলে রিমে ঘোষণা দেন, ফিফার নিয়মে অলিম্পিকে ফুটবল টুর্নামেন্ট আয়োজিত হবে। ওটাকে ফিফা ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপের স্বীকৃতি দেওয়া হবে। তার মানে টেকনিক্যালি বেলজিয়ামও কিন্তু তাদের জার্সিতে একটি তারা যোগ করে দিতে পারে। ১৯২০ অলিম্পিক ফুটবলের সোনা যে জিতেছিল তারা! যদিও ওই ফাইনালটা এক রসিকতা ছাড়া আর কিছুই ছিল না। রেফারিংয়ে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ তুলে খেলার ৪০ মিনিটের সময় অন্য ফাইনালিস্ট (লুপ্ত) চেকোস্লোভাকিয়া মাঠ ছেড়ে চলে যায়।
এখন যদি কেউ বিতর্ক তুলতে চান উরুগুয়ের জার্সিতে বুকে চার তারা নিয়ে তুলতেই পারেন। কিন্তু ফিফার অফিসিয়াল ইতিহাস কিন্তু ১৯২৪ ও ১৯২৮ এর অলিম্পিক সোনাজয়ী উরুগুয়েকে আনুষ্ঠানিকভাবেই ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নের স্বীকৃতি দেয়।
সূত্র : মেট্রো, পরিবর্তন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত