প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চট্টগ্রামে অপরাধের সাথে জড়াচ্ছে কিশোরীরা

সাজিয়া আক্তার : চট্টগ্রামে শুধু কিশোররা নয়, অপরাধে জড়াচ্ছে কিশোরীরাও। এখনো কলেজের গন্ডী পেরোয়নি অভিজাত পরিবারের এমন পরিবারের কিশোরীরাও এখন হয়ে পড়ছে মাদকাসক্ত। সামাজিক মূল্যবোধের অভাবে এসব কিশোরী পরিবারের অজান্তেই জড়িয়ে পরছে নানা অপরাধে।

চট্টগ্রামের চট্টেশরি এলাকার মনু ক্যাফে রেস্টুরেন্টে গত রোববার প্রেমিক আনাস এবং বন্ধুদের নিয়ে গল্প করছিলেন ইংরেজি মাধ্যমের শিক্ষার্থী উম্মে আইমন সিং। এসময় তার সাবেক প্রেমিক জিহাত ও তার বন্ধুরা রেস্টুরেন্টটিতে আসে। সাবেক প্রেমিককে শায়েস্তা করতে আইমন প্রেমিককে ছুরি বের করে দিলে জিহাত ও তার বন্ধু অসেফ জামানকে ছুড়িকাঘাত করে আনাস। এই ধরনের দৃশ্য ধরা পরে রেস্টুরেন্টের সিসি ক্যামেরায়।

ইংরেজি মাধ্যম ওলেভেলে পরোয়া মাদকাসক্ত ছিল, গত ১৭ তারিখে ষোলশহর এলাকায় পুলিশের উপর গুলি ছুড়ায় আইমন, জিহাতসহ আরো ৫ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এরপর জিহাতের সঙ্গে তার সম্পর্কের ফাঁটল ধরলে আনাসের সাথে প্রেমে জড়িয়ে পরেন আইমন।

চট্টাগ্রাম সিএমপি উপ-কমিশনার (দক্ষিন) এসএম মোস্তাইন হোসেন বলেন, এখানে মামলা হয়েছে, আমরা তিনজনকে আটক করতে পেরেছি। যার ব্যাগ থেকে ছুরি বের করে দেওয়া হয় তাকেই প্রথম আটক করতে সমর্থন হই।

সঠিক মানসিক বিকাশের পর ক্রমেই বন্ধ হয়ে যাওয়ায় কিশোরীরা অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে বলে মনে করেন সমাজবিজ্ঞানী।

সমাজবিজ্ঞানী প্রফেসর ড. অনুপম সেন বলেন, আমাদের সময় স্কুল-কলেজে সাহিত্য, সংস্কৃতি ইত্যাদি চর্চা করতো এখন সেই সব সুযোগ কমে যাচ্ছে। সংস্কৃতি চর্চা, খেলাধূলুর চর্চা, এবং একজন আরেক জনের সহমর্মীতা এসব জিনিস স্কুলে শিখাতে হবে। তাহলে শিশু-কিশোররা এইসব অপরাধমূলক কাজে কম জড়াবে।

আহত জিহাতকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এই ঘটনায় পুলিশ আইমনসহ তার দুই বন্ধবী নিসাত, মাইশা ও দুই বন্ধকে গ্রেফতার করে। এদিকে ঘটনার দায় স্বীকার করে আদালতে স্বীকারক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছে আইমন।

সূত্র : ডিবিসি টেলিভিশন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত