প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মেডিকেল চেকআপ করে গর্ভপাত ঘটানো আধুনিক নাৎসিবাদ

নূর মাজিদ: মাতৃগর্ভে থাকা অবস্থায় অপরিণত ভ্রনের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে আংশিক অপরিণত ভ্রুন বা শিশুর গর্ভপাত গনহত্যার মতোই অপরাধ। এমনকি এমন কাজকে নাৎসিদের আদর্শের সঙ্গে তুলনা করেছেন পোপ ফ্রান্সিস। শনিবার ইতালির ফ্যামিলি এ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এমন কথা বলেন।

এসময় তিনি বলেন, “শিশুরা হলো করুণাময় ঈশ্বরের দেয়া সবচাইতে বড় উপহার। ঈশ্বর তাদের যেভাবে তৈরি করেছেন তাতে যদি তাদের গর্ভাবস্থায় কিছু শারীরিক ত্রুটিও থাকে তবু তাদের পৃথিবীতে স্বাগত জানানো উচিৎ। কিন্তু, আধুনিক সময়ে আমরা জন্মের আগেই স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে গর্ভপাত ঘটিয়ে অনেক শিশুকে হত্যা করছি। এটা স্রেফ নাৎসিবাদি মাসিকতার আধুনিক প্রতিফলন। এভাবে একদিন হিটলারের জার্মানিও ত্রুটি-বিচ্যুতি বিহীন জার্মান জাতি তৈরির স্বপ্ন দেখেছিলো। এমন সমাজে দুর্বলের কোন স্থান নেই।

নাৎসিবাদের সঙ্গে  গর্ভপাতের এমন উদাহরণ টেনে তিনি আরো বলেন, এই ধরণের সিদ্ধান্তের শুরুতেই একটি বড় অন্যায় করা হয়। আমরা একবারও চিন্তা করিনা আমরা শিশুদের হত্যা করতে যাচ্ছি।  পবিত্র ও অমলিন একটি জীবনকে এভাবে ধ্বংস করবার আমাদের কি অধিকার রয়েছে! গত শতাব্দীতে যখন নাৎসিরা এমন শুদ্ধি অভিযান চালিয়েছিলো তখন সারা বিশ্ব তাদের নিন্দা করেছে। কিন্তু আজ আমরা আমাদের সাদা আস্তিনের আড়ালে আমাদের জঘন্য গনহত্যার ইতিহাস রচনা করছি।

এদিকে ফ্রান্সিসের জন্মভূমি আর্জেন্টিনা বৃহস্পতিবার গর্ভপাত বৈধ করে একটি আইন পাস করেছে। গত মাসে ইউরোপের আরেক ক্যাথলিক দেশ আয়ারল্যান্ড এক গণভোটের পর গর্ভপাতের উপর থেকে জাতীয় নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়। ইয়ন/ রয়টার্স

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত