প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আমেরিকান ইন্সটিটিউড নামে তাইওয়ানে পরোক্ষ মার্কিন দূতাবাস স্থাপন: ক্ষুব্ধ চীন

শেখ নাঈমা জাবীণ: যুক্তরাষ্ট্র মঙ্গলবার তাইওয়ানের রাজধানীতে ২৫.৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের একটি অফিস ভবন উদ্বোধন করেছে। আমেরিকান ইন্সটিটিউট নামের এই ভবনটি মূলত দ্বীপ রাষ্ট্রটিতে পরোক্ষ মার্কিন দূতাবাস হিসেবেই কাজ করবে। গণতান্ত্রিক, স্ব-শাসিত এ দ্বীপের সাথে ওয়াশিংটনের কৌশলগত সম্পর্কের উপর জোর দেয়া এটি একটি বাস্তব দূতাবাস যা চীনের সাথে উত্তেজনা বৃদ্ধি করছে। পরোক্ষ এই দূতাবাস স্থাপনে চীন ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে। এই উপলক্ষে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বেইজিংকে বিব্রত করার জন্য তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট সাই ইং-ওয়ান বলেছেন যে, যুক্তরাষ্ট্র এবং তাইওয়ানের মধ্যে কূটনীতিক সম্পর্ক বৃদ্ধি করার লক্ষ্যেই এই মার্কিন স্থাপনাটি যুক্তরাষ্ট্র উদ্বোধন করেছে। এর মাধ্যমে দুই দেশের সম্পর্ক আরো বৃদ্ধি পাবে। তবে চীন এবং আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞদের ধারণা মূলত এই ভবনটি তাইপেতে পরোক্ষ মার্কিন দূতাবাস হিসেবেই কাজ করবে।
প্রেসিডেন্ট সাই বলেন ‘তাইওয়ান এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বন্ধুত্ব আগে কখনোই এতোটা আশাব্যঞ্জক ছিল না। এই সকল প্রচেষ্টার দ্বারা স্থাপনাটি একদিন যুক্তরাষ্ট্র এবং তাইওয়ানের বন্ধুত্বের সম্পর্কের চমৎকার সব গল্পে ভরে উঠবে।
চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বেইজিংয়ে একটি সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, আমরা পরোক্ষ এই দূতাবাস ভবন নির্মনে চীনে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূতের তলব করে এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে।
মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র গ্যাং সুয়াং বলেন, ‘ আমরা যুক্তরাষ্ট্রকে তাইওয়ান বিষয়ে চীনকে দেয়া প্রতিজ্ঞা মেনে চলার আহ্বান জানাই। আমরা যুক্তরাষ্ট্রকে তাদের ভুল পদক্ষেপ সংশোধন তাইওয়ানে শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখতে অনুরোধ জানাচ্ছি।’
চীন স্বায়ত্তশাসিত তাইওয়ানকে “এক চীন” নীতির অধীনে বলে দাবি করে ।রয়টার্স

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত