প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকি
সাকা’র ছোট ভাই গিয়াস উদ্দিনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জারি

মো. শহিদুল ইসলাম, চট্টগ্রাম: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকি ও রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা গিয়াসউদ্দিন কাদের চৌধুরীর বিরুদ্ধে চট্টগ্রামে আরও দুইটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ফটিকছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাজিম উদ্দিন মুহুরি জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শহীদুল্লাহ কায়সারের আদালতে এবং মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. আল-ইমরান খানের আদালতে অপর মামলাটি করেন নগর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম রণি। এর মধ্যে নাজিম উদ্দিন মুহুরির দায়ের করা মামলায় গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জারি করে আদালত এবং রনি মামলাটি গ্রহণ করে প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পাঁচলাইশ থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন বলে আদালত সূত্রে জানাগেছে।

এদিকে এর আগে বুধবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকি দেওয়ার অভিযোগে গিয়াসউদ্দিন কাদের চৌধুরীসহ ৬০-৭০ জনকে আসামি করে দায়ের করা মামলায় মনছুর আলম চৌধুরী (৪৭) ও নুরুল ইসলাম মেম্বার (৬০) নামে ফটিকছড়ি উপজেলার বিএনপির নেতাকে গ্রেপ্তার করা হয়।
বৃহস্পতিবার সকালে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাদেরকে চট্টগ্রাম আদালতে হাজির করা হলে কারাগারে পাঠানো নির্দেশ দেওয়া হয় বলে জানাগেছে।

প্রসঙ্গত: জিয়াউর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে মঙ্গলবার চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরী তার বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘আপনার বাবার চেয়েও আপনার অবস্থা খারাপ হবে। অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কটূক্তির জের ধরে নগরীর গুডস হিলে তাদের বাসায় হামলার ঘটনা ঘটেছে। বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ছাত্রলীগের অন্তত দেড় শতাধিক নেতাকর্মী মিছিল নিয়ে গুডস হিলে গিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে সেসময় গিয়াস কাদের চৌধুরী ছিলেন ঢাকায়। বাসায় ছিলেন গিয়াস কাদেরের ভাই সাইফুদ্দিন কাদের চৌধুরীর স্ত্রী সেলিনা কাদের চৌধুরী ও ছেলে শাহাদাত।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, বিক্ষুব্ধ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ‘জয় বাংলা’ স্লোগান ধরে গুডস হিলে উঠে গিয়াস কাদেরের বাসার সামনে পার্ক করা চার-পাঁচটি গাড়ি ভাঙচুর করে। বাসার জানালার কাঁচ, ফুলের টপ ও বাসার সামনে লাগানো সিসি ক্যামেরাও ভাঙচুর করেন তারা।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, ভাঙচুর করার পর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী ও গিয়াস কাদের চৌধুরীর কুশপুত্তলিকা পোড়ান এবং বাসার সামনে জুতা প্রদর্শন করে বিক্ষোভ করেন। অভিযুক্ত গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরী একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে মৃত্যুদন্ডে দন্ডিত সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর ছোট ভাই।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত