প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আতংকে সাধারণ মানুষ বেড়েই চলছে পাগলা কুকুর

জাকির হোসেন,পীরগঞ্জ (ঠাকুরগাঁও): ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে বেড়েই চলছে বেওয়ারিশ পাগলা কুকুরের আতংক। ভোর থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত শহরের পথচারীদের কামড়াচ্ছে পাগলা কুকুর। রেহাই পাচ্ছেনা শিশু থেকে শুরু করে বৃদ্ধরা।

পাগলা কুকুরের কামড়ে আহত হয়ে পীরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিতে আসা মোঃ জুলফিকার আলী জানান, ভোর বেলা ফযরের নামাযের সময় এবং দুরপাল্লার বাসগুলো শহরে আসার পর সেই যাত্রীদের উপর অতর্কিত হামলা চালায় পাগলা কুকুরের দল। এছাড়াও রাতে তারাবী নামাজের পর মুসল্লিদের উপর কুকুরের হামলার ঘটনা ঘটছে।

পীরগঞ্জ পৌরসভা থেকে শুরু করে, বথপালিগাঁও লুতুর দোকান, রঘুনাথপুর, জগথা, জয়কৃষ্টপুর, সিঙ্গারোল, ভেবরা বোর্ডহাট, কাতিহার, বেগুনগাঁও এলাকায় বেশী কুকুর দল বেধে পথচারীদের উপর হামলা করে বেশ আতংক সৃষ্টি করছে। এসব এলাকাগুলোতে মানুষ থেকে শুরু করে গরু ছাগল কেউ পাগলা কুকুর কামড় দিয়ে আহত করে।

বথপালিগাঁও গ্রামের মোঃ মেহেরাব আলী জানান, প্রতিদিনের ন্যায় তারা রাস্তার পাশ দিয়ে হেটে আসার সময় কয়েকটি কুকুর তাদের তাড়া করে। তারা কুকুরের কামড় থেকে রক্ষা পেতে ইট পাটকেল ছুড়লে আরো বেশি ক্ষিপ্ত হয় আরো বেশি কামড় দিতে আসে।

মাসুদা বেগম নামে একজন স্কুল ছাত্রীর অভিভাবক জনান, স্কুল পড়ুয়া মেয়েকে নিয়ে তিনি আতংকে আছেন। কুকুর আতংকে গৃহস্থলি কাজ বাদ দিয়ে মেয়েকে স্কুলে আনা-নেওয়া করতে হচ্ছে।

এ ব্যাপারে পীরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র কশিরুল আলম জানান, কুকুর নিধনে আইনগত বিধি নিষেধ থাকায় আমাদের কিছুই করার নেই।

এ বিষয়ে পীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ ডাব্লউ এম রায়হান শাহ্ বলেন, কুকুর মারা বর্তমানে সরকারি ভাবে বন্ধ আছে তবে কুকুর নিধন না করে কুকুরকে ইনজেকশন দিয়ে বিশাক্ত জীবানু নষ্ট করে জীবিত রাখা যেতে পারে।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত