প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কাউকে ‘সন্ত্রাসী’ ‘মাদকব্যবসায়ী’ বলেই খুন করা জায়েজ নয়

অধ্যাপক ড. আনু মোহাম্মদ : কাউকে ‘সন্ত্রাসী’ ও ‘মাদকব্যবসায়ী’ বললেই তাকে ধরে এনে খুন করা জায়েজ হয় না। যে কোনো প্রকল্পকে উন্নয়ন তকমা লাগিয়ে সর্বজনের পকেট কাটলেই তা উন্নয়ন হয় না। ক্রসফায়ারের অবিরাম মিথ্যা গল্প আর নিষ্ঠুর কর্মকান্ড সরকারের দরকার তিন কারণে, এক. সমাজে ভয়ভীতি জারি রাখা, দুই. চিন্তাহীন মানুষকে খুশি রাখা এবং তিন. এসব বাহিনীকে যথেচ্ছচারের ক্ষমতা দিয়ে নিজেদের কাজে লাগানো। সরকারি সংস্থার গোপন প্রতিবেদন বলেছে, এমপি বদি মাদকব্যবসার শীর্ষ নেতা ও পুলিশসহ সরকারি অনেক শীর্ষ কর্মকর্তাও এর সাথে জড়িত রয়েছে।

কিন্তু স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলছেন, বদির বিরুদ্ধে অভিযোগ আছে তবে তথ্য প্রমাণ নেই। সরকারি জমি দখল করে মন্ত্রী পুত্রের ইয়াবা কারখানার খবর পত্রিকাতেই বের হয়েছিল। এদেরকে রক্ষা করতে কাউকে না কাউকে তো বলি দিতেই হবে। গত এক দশকে সহ¯্রাধিক মানুষকে ঘর, দোকান, রাস্তা, জমি থেকে তুলে এনে ঠান্ডা মাথায় গুলি করে। পুলিশি হেফাজতে নির্যাতন করে হত্যা করতে কোনো তথ্য প্রমাণ লাগে না। মিথ্যা মেশিনের কথাই যথেষ্ট।

পরিচিতি : অধ্যাপক, জাবি/ মতামত গ্রহণ : মেহেদী হাসান/ সম্পাদনা : মোহাম্মদ আবদুল অদুদ

সর্বাধিক পঠিত