প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পুলিশের সোর্সদের সর্বপ্রথম ক্রসফায়ার দিতে হবে

মো. সোহাগ আকন্দ : মাদক ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেট এতোটাই শক্তিশালী যে, তাদের বিরুদ্ধে যেই ই কথা বলবে, তাকেই মাদক ব্যবসায়ী বানিয়ে দেয়া হবে। মাদকসেবন ও মাদক ব্যবসার সাথে বিভিন্ন দলের বড় বড় নেতা ও প্রশাসনের বড় বড় কর্মকর্তাগণও জড়িত। আর সেই সুবাধে মাদক ব্যবসায়ীরা নির্ভয়ে তাদের মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। আর এর ফলে নিরীহ কিছু মানুষ প্রাণ হারাচ্ছে। অভিযানে ইতোমধ্যে যারা আটক ও নিহত হয়েছে, তাদের মধ্যে কেউ কেউ নিরপরাধ বলে দাবি করেছে তাদের পরিবারগুলো। মাদক নির্মূল অভিযানকে সাধুবাদ জানাই। তবে খেয়াল রাখতে হবে, অভিযানের নাম দিয়ে মাদক প্রতিবাদী কোন মানুষের প্রাণ যেন না যায়। উপযুক্ত প্রমাণ ও অভিযোগ ছাড়া কাউকে যেন আটক করা না হয়।

খুচরা মাদক ব্যবসায়ীদের ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করলেই দেশে বড় বড় রাঘববোয়াদের ধরা যাবে। বিশেষকরে যারা উৎপাদন থেকে শুরু করে ডিলার ও খুচরা ব্যবসায়ীদের মাঝে মাদক পৌঁছে দিচ্ছে। সবার আগে তাদেরকে ধরতে হবে। এদের ধরতে পারলে দেশে কোন বিতর্ক থাকবে না। আর যারা দোষারোপের রাজনীতি করছেন, এই মাদক অভিযান নিয়ে তাদের গলাবাজিও কমে যাবে। পুলিশের সোর্স বা ইনফর্মারগুলোকে সবার আগে ধরার দরকার ছিল। এরাই সকল প্রকার অপরাধের আগে থাকে এবং মাদক ব্যবসায় সহযোগীতাও করে। তাই সবার আগে এসব অপরাধী সোর্সদেরই আগে ক্রসফায়ার দেয়া দরকার।

পরিচিতি: মুক্তিযোদ্ধার সন্তান/ মতামত গ্রহণ: মো. এনামুল হক এনা/ সম্পাদনা: জাফরুল আলম

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত