প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বেলজিয়ামে বন্দুক হামলাকারী আগের রাতেই আরেকটি খুন করে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ইফ্ফাত আরা: বেলজিয়ামের লিজ শহরে এক বন্দুকধারীর গুলিতে মঙ্গলবার দুইজন পুলিশ কর্মকর্তা সহ এক পথযাত্রী নিহত হয়েছে। এই ঘটনার আগের রাতেই হামলাকারী ব্যক্তি আরেক ব্যাক্তিকে খুন করেছে বলে জানিয়েছে দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জ্যান জ্যাম্বন বলেছেন, বন্দুক নিয়ে হামলাকারী ব্যক্তিটির নাম বেঞ্জামিন হারমান। তিনি এর আগে জেল হাজতে ছিলেন, যাকে খুন করেছেন সেও একজন প্রাক্তন আসামি। জেলখানাতেই দুজনের দেখা হয়েছিলো। তিনি আরো বলেন, কর্তৃপক্ষ হামলার মূল উদ্দেশ্য খতিয়ে দেখছেন।

এদিকে বন্দুক হামলাকারী একজন নারীকে জিম্মি রেখে দুজন পুলিশ কর্মকর্তাকে মারার সময় ‘আল্লাহু আকবার’ স্লোগান দিয়েছিলেন বলে, একজন পুলিশ কর্মকর্তা বরাত দিয়ে দেশটির স্থানীয় গণমাধ্যমগুলোতে তা সম্প্রচার করেছে। বেলজিয়ামের আরটিবিএফ নামক সংবাদ সংস্থাটি জানিয়েছে, বন্দুক হামলাকারী ব্যক্তিটি ড্রাগ প্রদানের দায়ে জেলে ছিলো, গত সোমবার তিনি জামিনে ছাড়া পেয়ে এ হত্যাযজ্ঞ ঘটায়। পুলিশ কর্মকর্তা ও পথযাত্রীর হত্যা প্রসঙ্গে আরটিএল রেডিওকে জ্যাম্বন বলেন, হয়তো জেল হাজতেও হামলাকারী বিচ্ছিন্নভাবে ছিলেন, কিন্তু এই বিচ্ছিন্নতাবাদী বেড়িয়েই এ কান্ড ঘটাবে তা কে জানতো! তবে ধারণা করা যাচ্ছে ড্রাগ আসক্তির কারণেই এমনটা করেছে।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার সকালে লিজ শহরে এক ক্যাফের সামনে বন্দুকহামলা হয়। প্রসিকিউটর জানিয়েছেন, হামলাকারী প্রথমে দুজন নারী কর্মকর্তাকে অনুসরণ করে, জঘন্যভাবে ছুরিকাঘাত করে, বন্দুক দিয়ে গুলি করে। এছাড়াও তিনি গাড়ি পার্কিং স্থানে যাত্রী আসনে বসা ২২ বছর বয়সী যুবককে গুলি করে মারেন। এরপর নিকটস্থ বিদ্যালয থেকে একজন কর্মীকে জিম্মি করে কর্মকর্তাদের উপর আাক্রমন চালায়। আক্রমণ থেকে বাঁচতে সশস্ত্র পুলিশ কর্মকর্তারা ঢাল, হেলমেট, বুলেটপ্রুফ পোশাক পরে আক্রমণাস্থানে পৌঁছান এবং বিষয়টি হস্তক্ষেপ করেন। শুরুতে হামলাকারী পালানোর জন্য কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্য করে এলোপাথাড়ি গুলে ছুঁড়ে, এতে দুজন কর্মকর্তার পা গুলিবিদ্ধ এবং আরেকজন কর্মকর্তা গুরুতরভাবে আহত হয়েছে।

তাছাড়া হামলাকারী নিহত হওয়ার আগে আরো দুজন পুলিশ কর্মকর্তার হাত গুলিবিদ্ধ হয়েছে বলে প্রসিকিউটর আরো উল্লেখ করেছেন। বিবিসি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত