প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘গার্মেন্টস’র পাশাপাশি আইসিটিসহ বিকল্প শিল্পগুলোকেও বাজেটে গুরুত্ব দিতে হবে’

আশিক রহমান: আসন্ন বাজেটে গার্মেন্টস শিল্পের পাশাপাশি আইসিটি, ফার্মাসিটিক্যালসহ বিকল্প সম্ভাবনাময় শিল্পগুলোকেও সমান গুরুত্ব দিতে হবে বলে মনে করেন এফবিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি কাজী আকরাম উদ্দিন আহমদ। আমাদের অর্থনীতির সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, আমাদের পোশাকশিল্প হয়তো আজকে ভালো অবস্থায় রয়েছে, এটা নিশ্চয়ই আমাদের জন্য অনেক ভালো লাগার। কিন্তু আমাদের তো অলটারনেটিভ সেক্টরও তৈরি করতে হবে। আমাদের ফিসারিজ আছে, আইসিটি আছে, আমাদের ফার্মাসিটিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিও রয়েছে। এমন অনেক সেক্টর রয়েছে যেগুলো গ্রো করতে পারে, সেটাও আমাদের চিন্তা করতে হবে। কেবল একটা সেক্টরের দিকে তাকিয়ে থাকলে হবে না, অনেক বিকল্প তৈরি করতে হবে।

তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেন, ভিয়েতনাম একদিন আমাদের উপরে চলে যেতে পারে কিংবা অন্য যে কেউ আমাদের ছাড়িয়ে যেতে পারে। এ বিষয়গুলো নিয়ে আমাদের ভাবতে হবে। এবং নতুন নতুন উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে, বিকল্প সেক্টর তৈরি করে আমাদের অর্থনীতিকে শক্তিশালী করতে হবে। এজন্য সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে। কাজী আকরাম উদ্দিন আহমদ বলেন, আমাদের গার্মেন্টস সেক্টর এখন অনেক ভালো করছে। অনেকদিন ধরেই আমরা ভালো কাজ করে আসছি গার্মেন্টস শিল্পে। যার ফলে আমাদের গার্মেন্টস সেক্টরের সুনাম সারা পৃথিবীতে। এই শিল্প যেন আরও ভালো করতে পারে প্রয়োজনে অতীতের মতো নিশ্চয় সব ধরনের সহযোগিতা দেবে সরকার এমনটিই প্রত্যাশা করছি আমরা।

তিনি বলেন, পোশাকশিল্পকে আমরা অতীতে অনেকরকম প্রণোদনা দিয়েছি। এই শিল্প যাতে এগিয়ে যেতে পারে, এগিয়ে যাওয়ার পথে প্রতিবন্ধকতাগুলো দূরীকরণে যা যা সহায়তা তা তারা পেয়েছে। ব্যবসায়ীরা যখনই যা চেয়েছেন তখনই তারা তা পেয়েছেন। বাজেটে পোশাকশিল্পের জন্য প্রণোদনা রাখতে হলে ব্যবসায়ীদেরও সে ধরনের সুযোগ-সুবিধা দিয়ে তা নিতে হবে। তাদেরও বুঝতে হবে দেশে অন্য সেক্টরও রয়েছে। সম্ভাবনা সেসব সেক্টরকেও সহযোগিতা করতে হবে। বিকল্প শক্তিশালী সেক্টর তৈরি করতে পারলে আমাদের অর্থনীতি স্থিতিশীল ও টেকসই উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলেও মনে করেন এই ব্যবসায়ী। -আমাদের অর্থনীতি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত