প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দেশের একশজন ঋণ খেলাপির তালিকা প্রস্তুত করা হোক : ড. আবুল বারকাত

আশিক রহমান : দেশের সর্বোচ্চ একশজন ঋণ খেলাপির তালিকা প্রস্তুত করার প্রস্তাব করেছেন জনতা ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান ও অর্থনীতিবিদ ড. আবুল বারকাত। আমাদের অর্থনীতির সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, অর্থনীতি সমিতি থেকে আমরা বলেছি, দেশের সর্বোচ্চ একশজন ঋণ খেলাপির তালিকা প্রস্তুত করা হোক। কেন তারা ঋণ খেলাপি হলো তা খতিয়ে দেখা হোক। কারণ কেউ একজন ঋণ খেলাপি অনেক কারণেই হতে পারে। খেলাপি হলেই আপনি কাউকে গালি দেবেন, এটাও ঠিক নয়।

তিনি আরও বলেন, কেউ খেলাপি হলে দেখা দরকার তার ইন্ডাস্ট্রি আছে কি না। যদি তার ইন্ডাস্ট্রি থেকে থাকে তাহলে সেখানে নিশ্চয় শ্রমিকও রয়েছে। শিল্পমালিক তার শ্রমিকদের বেতন নিয়মিত দেয় কিনা। আপনি একটা ব্যবসায় গিয়ে পাস করতে পারেন, আবার ফেলও করতে পারেন। ডাবল ডিজিট সুদ বা চৌদ্দ-পনের শতাংশ সুদ এবং ঘুষ-টুষ সবকিছু মিলিয়ে ২০ শতাংশ সুদের হার ক্রস করে যাবে। এরকম পরিস্থিতিতে আপনাকে যদি এককোটি টাকা দিই, প্রতি মাসে ২০ শতাংশ সুদ পরিশোধ করতে হবে। পারবেন সহজে? কোন ইন্ডাস্ট্রি করবেন আপনি, যেখানে লাভ করে দেশের শিল্পায়নে অবদান রাখবেন। এটা অত্যন্ত কঠিন কাজ।
এক প্রশ্নের জবাবে ড. আবুল বারকাত বলেন, আগেই বলেছি, সর্বোচ্চ একশজন ঋণ খেলাপি, যাদের মধ্যে অনেকেই রয়েছেন যাদের অভ্যাস টাকা নিয়ে ফেরত না দেওয়া। এ ধরনের ঋণ খেলাপিদের নিয়ে আমাদের ভাবা দরকার। আমরা এটাও বলেছি যে, আলাদা একটা ট্রাইব্যুনাল করা দরকার ঋণ খেলাপিদের বিষয়ে কাজ করার জন্য। এই ট্রাইব্যুনাল যাকে-তাকে দিয়ে করলে হবে না। এ ট্রাইব্যুনালে যদি কোনো আমলা থাকেন, তা দিয়ে কাজ হবে না। যারা অর্থনীতি বা ব্যাংক ব্যবস্থা সম্পর্কে ভালো বোঝেন তাদের দিয়ে আলাদা একটা ট্রাইব্যুনাল করে ঋণ খেলাপিদের বিচার-বিশ্লেষণ করা দরকার। এটা করে ঋণ খেলাপিদের সহযোগিতা করা প্রয়োজন।

তিনি বলেন, সহযোগিতা করা মানে এই নয় যে, আপনি খেলাপি করে চলে যাবেন, আমি আপনার মাথায় হাত বুলিয়ে বললাম, আপনি খুব ভালো মানুষ! বিষয়টি এমন নয়। খেলাপিদের সহযোগিতা করা মানে হচ্ছেÑ কেন সে ঋণ খেলাপি হলো, কীভাবে হলো তা জানা। দেখা যাবে ফিফটি পার্সেন্ট খেলাপি নিজের দোষে হয়নি, বাকি ফিফটি পার্সেন্টের অভ্যাসই হচ্ছে টাকা নিয়ে ফেরত না দেওয়া। যাদের অভ্যাসই হচ্ছে টাকা নিয়ে ফেরত না দেওয়া তাদের বিষয়ে শক্ত পদক্ষেপ নেওয়া দরকার বলেও মনে করেন এই অর্থনীতিবিদ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত