প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘গরু চোরাকারবারি মরলেও মাদক চোরাকারবারি করতে গিয়ে কেউ মরে না’

হ্যাপী আক্তার : বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেছেন, গরু চোরাকারবারি করতে গিয়ে মানুষ মরা যায়। তবে মাদক বা ফেনসিডিল চোরাকারবারি করতে গিয়ে কেউ মারা গেছে এই কথা শুনেছেন? এই জায়গাটিতেই গলদ।

বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল যমুনাতে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেন, সর্বকালের রেকর্ড পরিমাণে এতো আলোচনা হচ্ছে মাদক নিয়ে। এই বিষয়ে যে ভারতের সাথে এতো বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক একদিন বাংলাদেশের কাছ থেকে প্রস্তাবনা শুনলাম না সীমান্ত অঞ্চলে ফেনসিডিলের যে কারখানাগুলো আছে এগুলোকে ধ্বংস করার কথা। বিজিবি ও বিএসএফ এর যৌথ উদ্যোগে মাদককে ধ্বংস করি।

তিনি বলেন, ইয়াবা ও ফেনসিডিল মাদকের দুই রাণীর মতো। এই দুটোর একটিও বাংলাদেশে উৎপাদিত হয় না। এটি মূলত আসে পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত ও মিয়ানমার থেকে। যেভাবে বাংলাদেশ ও ভারতের সীমান্তের কাছাকাছি জায়গায় জঙ্গি আস্তানাগুলোকে ভেঙে দেওয়া হয়েছে। সেভাবেই আমাদের মাদকের আস্তানাগুলোকেও ভেঙে দেওয়া দরকার ।

বিএনপির এই নেতা আরো বলেন, বর্তমান যে মাদক বিরোধী অভিযান চলছে, এই মাদক আসছে সীমান্ত দিয়ে। এই অভিযানে কি সীমান্তরক্ষী বাহিনীকে জড়িত করা হয়েছে, হয়নি! তার সাথে ৫টি তদন্ত কমিটির যে তদন্ত এসেছে তার মধ্যে বিজিবি’র কোনো তদন্তের রিপোর্ট এসেছে এই বিষয়টি আমরা জানতে পারিনি।

শুধু আওয়ামী লীগ বা বিএনপি বলে কথা নয়, যে সরকার যখন ক্ষমতায় থাকে, যে কাজগুলো যখন অন্যদের দৃষ্টিতে অবৈধ হয় মনে হয় তাদের কাছে তা বৈধ মনে হয়। এগুলো নিয়ে বির্তক থাকবেই। সূত্র : যমুনা টিভি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত