প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বন্ড চরিত্রে ড্যানিয়েল ক্রেইগের পারিশ্রমিক ৫৬২ কোটি টাকা!

বিনোদন ডেস্ক : একটি ছবিতে অভিনয়ের জন্য ৫৬২টি কোটি টাকা! হ্যাঁ এটাই সত্য, ড্যানিয়েল ক্রেইগ ‘০০৭’ জেমস বন্ড সিরিজের নতুন কিস্তিতে অভিনয়ের জন্য ৫০ মিলিয়ন পাউন্ড, বাংলাদেশী মুদ্রায় প্রায় ৫৬২  কোটি ৪১ লাখ টাকা পারিশ্রমিক পাবেন বলে জানা গেছে। ‘০০৭’ চলচ্চিত্রটি ২০১৯ সালের নভেম্বরে মুক্তি পাবে।

৫০ বছর বয়সী এ অভিনেতাকে মুনাফাসহ নির্বাহী প্রযোজকের কৃতিত্বও দেয়া হবে বলে তথ্য দিয়েছে মিরর ডটকম। এর আগে ২০১৫ সালে স্পেকটার চলচ্চিত্রে একই চরিত্র রূপায়ণের জন্য ৩৭ মিলিয়ন পাউন্ড পারিশ্রমিক পান। আর এবার ৫০ মিলিয়ন পাউন্ড প্রদান করা হলে ক্রেইগ হয়ে উঠবেন বিশ্বের অন্যতম বেশি পারিশ্রমিক পাওয়া অভিনেতাদের একজন।

আরো জানা গেছে, ক্রেইগ স্পেকটার ও স্কাইফল— এ দুটো চলচ্চিত্রে আয় করেছেন যথাক্রমে ৮০০ মিলিয়ন ও ১ বিলিয়ন ডলার।

ড্যানিয়েল ক্রেইগের সঙ্গে তুলনা করলে অস্ট্রেলীয় অভিনেতা জর্জ ল্যাজেনবি জেমস বন্ডের একটি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য আয় করেন ৭২ হাজার পাউন্ড এবং এই একই চরিত্রে সাতটি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য রজার মুর আয় করেছিলেন ১৭ মিলিয়ন পাউন্ড। টিমোথি ডেল্টন ‘দ্য লিভিং ডেলাইটস’ ও ‘লাইসেন্স টু কিল’— এ দুটো চলচ্চিত্রে জেমস বন্ডের ভূমিকা রূপায়ণে পারিশ্রমিক পান ৪ মিলিয়ন পাউন্ড। অন্যদিকে পিয়ার্স ব্রসনান ১৯৯৫ থেকে ২০০১ পর্যন্ত জেমস বন্ডের চারটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করে আয় করেন ১৩ মিলিয়ন পাউন্ড।

ক্রেইগ নতুন ‘০০৭’-এর শুটিং শুরু করবেন আগামী ডিসেম্বরে। ধারণা করা হচ্ছে, গোটা চলচ্চিত্রের শুটিং সম্পন্ন হতে সময় লাগবে টানা পাঁচ মাস। ক্রেইগ অবশ্য প্রথমে বলেছিলেন, বন্ড চরিত্রে তিনি আর ফিরবেন না। তবে পরবর্তীতে নিশ্চিত করেছেন, জেমস বন্ডের ২৫তম কিস্তিতে তাকে দেখা যাবে।

যদি আয়ের হিসাব করা হয়, তবে অস্কারবিজয়ী ড্যানি বয়েল, যিনি এ আসন্ন চলচ্চিত্রটি পরিচালনা করতে যাচ্ছেন, তিনি অর্জন করবেন ৭ মিলিয়ন পাউন্ড।

লস অ্যাঞ্জেলেসের একটি সূত্র জানিয়েছে, ‘ক্রেইগ ও ড্যানি বয়েল একসঙ্গে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। পাইনউডে ডিসেম্বরে ক্যামেরা চালু হওয়ার বিষয়ে তারা এর মধ্যেই সামগ্রিক বিষয় নিয়ে কথা-বার্তা বলছেন।’

 

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস/বণিকবার্তা

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত