প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মালির স্পাইডারম্যানকে ফ্রান্সের নাগরিকত্ব দিলেন ম্যাক্রোঁ ( ভিডিও)

লিহান লিমা: প্যারিসের বহুতল ভবনের একটি ব্যালকনিতে ঝুলে ছিল এক ছোট্ট শিশু। এত ওপর থেকে পড়লে নিশ্চিত মৃত্যুর আশঙ্কা। এই সময় রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলেন মালির শরণার্থী মামুদো গাসামা। সময়ক্ষেপণ না করেই রেলিং ধরে তরতরিয়ে উঠে গেলেন তিনি। নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে উদ্ধার করলেন শিশুটিকে।

রাস্তায় থাকা পথচারীরা স্পাইডারম্যানের মত তার এই উদ্ধারকার্যের ভিডিও করেন। এতে দেখা যায়, রেলিং ও ব্যালকনি ধরে ধরে পাঁচ তালায় উঠে যান তিনি। রক্ষা করেন চার বছরের শিশুটিকে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তা মুহুর্তেই ভাইরাল হয়ে পড়ে। এটি চোখে পড়ে ফ্রান্সের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের। এরপর তার ডাক পড়ে এলিসি প্রাসাদে। সেখানে প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ তার তার সঙ্গে দেখা করে তাকে ধন্যবাদ জানান। সাহসীকতার জন্য পদক দেয়া ছাড়াও তাকে দেয়া হল ফ্রান্সের নাগরিকত্ব। এমনকি দেশটির উদ্ধারকর্মী হিসেবে কাজ করার জন্যও তাকে প্রস্তাব দেয়া হয়।

২০১৭ সালে ভূমধ্যসাগরের বিপদসংকূল পথ পাড়ি দিয়ে ইউরোপে প্রবেশ করেন গাসামা। হয়তো সেই অভিজ্ঞতাই তাকে যে কোন পরিস্থিতিতে সঠিক কাজ করার পথ দেখিয়েছিল। ম্যাক্রোঁকে ওই দিনের অভিজ্ঞতা বর্ণনা করতে গিয়ে গাসামা বলেন, শনিবার বিকেলে রাস্তায় হাঁটছিলাম। এমন সময় দেখি একটি বিল্ডিংয়ের সামনে অনেক লোক জড়ো হয়ে আছে। ম্যাক্রোঁকে আমি চিন্তা করার জন্য এতটুকু সময় নেই নি। আমি রাস্তা পার হই, এবং উঠে গিয়ে শিশুটিকে বাঁচাই। তিনি বলেন, নিরাপদে উদ্ধারের পরও বাচ্চাটি কাঁদছিল। তার পায়ে একটু আঘাত লেগেছিল।

একটু পরই উদ্ধারকর্মীরা চলে আসে। তবে ততক্ষণে গাসামা বাচ্চাটিকে উদ্ধার করেছেন। একজন বলেন, সৌভাগ্যবশত শারীরিকভাবে সক্ষম ও সাহসী একজন ছিল যিনি এটি করতে পেরেছেন। স্থানীয় কর্তৃপক্ষ জানায়, ওই সময় বাচ্চাটির বাবা-মা বাসায় ছিল না। বিচারবিভাগীয় সূত্র জানায়, সন্তানকে এভাবে রেখে যাওয়ার জন্য বাবাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। মা প্যারিসে নেই।

প্যারিসের মেয়র এনি হিদালো ২২ বছরের এই তরুণের সাহসিকতার প্রশংসা করেন ও তাকে ধন্যবাদ জানান। তিনি তাকে ‘২০১৮ সালের স্পাইডারম্যান’ এবং ‘সবনাগরিকের উদাহরণ’ বলে উল্লেখ করেন। বিবিসি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত