প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘সরকারের উপর নির্ভরশীল হলে তারা কমার্শিয়াল ব্যাংক খুলেছে কেন’

মেহেদী হাসান: আমাদের দেশের প্রাইভেট ব্যাংকগুলো যোগসাজস করে সুদের হার নির্ধারণ করে থাকে। সুদের হার কমাতে হলে প্রোফিট টার্গেট কমাতে হবে। তারা যদি সরকারের উপর নির্ভরশীল হয়ে যায় তাহলে তারা কমার্শিয়াল ব্যাংক খুলেছে কেন? দেশে সব সরকারি ব্যাংক থাকলেই তো হয়ে যায়। আমাদের দেশে ব্যাংকের সংখ্যা অনেক হওয়ার কারণে প্রত্যেকেরই ব্যবসায় কম হচ্ছে। ফলে তারা সুদের হার বাড়াচ্ছে।

অর্থনীতিতে এটাকে স্কেল ইকোনমি বলে, কিন্তু সেটা এখানে নাই। সুদের হার কমানোর জন্য সরকারি ব্যাংকের আমানত স্বল্প সুদে চাওয়া নিয়ে আলাপকালে বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ড. এ বি মির্জা আজিজুল ইসলাম আমাদের অর্থনীতিকে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাংক তাদের সিদ্ধান্ত, তাদের নিজস্ব ব্যবসায়’র উপর নির্ভর করে নিবে। তবে প্রাইভেট ব্যাংককে সাপোর্ট দেওয়া রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাংকের কাজ নয়। আমাদের প্রতিবেশি দেশ ভারতে ব্যাংকের সংখ্যা আমাদের চেয়ে কম আছে। অপরিশোধিত ঋণের হার এখানে বেশি। ব্যাংকের সঞ্চয় হলেও তাদের মধ্যে প্রতিযোগিতা হচ্ছে না বরং তারা যোগসাজসের মাধ্যমেই এই সুদের হার নির্ধারণ করে। তাদের উচিত ডিপোজিট মবিলাইজ করা। সার্বিকভাবে ব্যাংকিং খাতে তারল্যের অভাব নাই। প্রাইভেট ব্যাংকগুলো রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাংক থেকে কম হারে সুদ দিয়ে তাদের কাছ থেকে ডিপোজিট নিবে যেহেতু তাদের অধিতারল্য আছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত