প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দুই কোটি বিঘা খাস জমি ভূমিদস্যুদের দখলে

আদম মালেক : দেশে ২ কোটি বিঘা খাস জমি ভূমি দস্যুদের দখলে। এসব খাস জমি জলা দরিদ্রদের হিস্যা। তাই ১ লক্ষ ভূমিহীন পরিবারের মধ্যে কমপক্ষে ২ লক্ষ বিঘা খাস জমি বন্দোবস্তের প্রস্তাব করেছে বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতি।

শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বাংলাদেশ বিনির্মাণে বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির
বাজেট প্রস্তাবনা ২০১৮-১৯’ শীর্ষক সংবাদ সম্মেলনে এ প্রস্তাব দেওয়া হয়।

সংবাদ সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির সভাপতি ও অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক ড. আবুল বারাকাত। সূচনা বক্তব্য প্রদান করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ড. জামালউদ্দিন আহমেদ। সম্মেলনটি ঢাকাসহ চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, কুষ্টিয়া, দিনাজপুর, নড়াইল, নোয়াখালী, চাঁদপুর ও ময়মনসিংহে একযোগে অনুষ্ঠিত হয়।

অর্থনীতি সমিতির নেতারা বলেন, জলা-জমি-জঙ্গল বাংলাদেশের সম্পদ। এ সম্পদের সুষম ব্যবহারে প্রস্তাবিত বাজেট বছরেই কৃষি ও কৃষক ভাবনার যথার্থ বিচারে ১ লক্ষ ভূমিহীন পরিবারের মধ্যে কমপক্ষে দুই লক্ষ বিঘা কৃষি খাস জমি পাশাপাশি ২০ হাজার প্রকৃত মৎসজীবি পরিবারের মধ্যে কমপক্ষে ৫০ হাজার প্রকৃত খাস জলাশয় বন্দোবস্ত সম্ভব।

তিনি বলেন, বিষয়টি বাজেটে অর্ন্তভুক্ত করে এ লক্ষ্যে কমপক্ষে ১ হাজার কোটি টাকার বাজেট বরাদ্দসহ বাস্তবায়ন কৌশল সংশ্লিষ্ট পথনির্দেশনা প্রদান জরুরী। নেতৃবৃন্দ বলেন, দেশে ২ কোটি বিঘা খাস জমি জলা এখন জলদস্যু ও ভূমিদস্যুদের দখলে। এসব খাস জমি জলা দরিদ্রদের হিস্যা। তা কিভাবে দরিদ্র ভূমিহীন প্রান্তিক নারী-পুরুষের মালিকানায় যাবে এ বিষয়ে বাজেটে সুনির্দিষ্ট বরাদ্দসহ স্পষ্ট দিকনির্দেশনা থাকতে হবে। এবারের বাজেটি কৃষি-ভূমি-জলা সংস্কারের বিষয়টি
যথামাত্রায় গুরুত্ব দিতে হবে। যেমন ভুমিহীনদের মধ্যে খাস জমি বন্টন,খাস জমিতে দরিদ্র মানুষের আবাসন, খাস জলায় প্রকৃত জেলের অভিগম্যতা- মালিকানা,বর্গা চাষীর বর্গা স্বত্ব নিশ্চিত প্রান্তিক ও ক্ষুদ্র কৃষকের ন্যায্য পণ্যমূল্য প্রাপ্তি নিশ্চিত করা ইত্যাদি বিষয় বাজেটে স্পষ্ট থাকতে হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত