প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চরাঞ্চলে সূর্যমুখী চাষে লাভবান চাষীরা

জান্নাতুল ফেরদৌসী: দেশের চরাঞ্চলে বাড়ছে সূর্যমুখী চাষ। যমুনা ও নোয়াখালীর চরের পতিত জমিতে সূর্য মুখী চাষ করে লাভবান হচ্ছেন চাষীরা।কৃষকদের প্রনোদনা হিসেবে বীজ ও কীটনাশক সরবরাহ করে সূর্যমূখী চাষে উদ্ধুদ্ধ করলে কৃষক যেমন লাভবান তেমনি দেশও উন্নত হবে।

সিরাজগঞ্জের সদর উপজেলার দুর্গম চরাঞ্চল চর বয়ড়া গ্রাম। এসব চরাঞ্চলের অধিকাংশ জমি পতিত পরে থাকে। এবারই প্রথমবারের মত প্রায় ৪ বিঘা জমিতে সূর্যমুখী চাষ করেন ইউসুফ আলী। ভালো ফলন পাওয়ায় দিন দিন সূর্যমূখীর চাষ বাড়ছে এই এলাকায়।

সিরাজগঞ্জ সদরের উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রুস্তম আলী বলেন, মাত্র ১০০ দিনে সূর্যমুখী চাষ করে ফসল ঘরে উঠানো সম্ভব। তাই চরাঞ্চলে সূর্যমূখী চাষে কৃষকদের আগ্রহ বাড়াতে নানা পরামর্শ দেয়া হচ্ছে।

নোয়াখালী সদর ও সূবর্ণচর এলাকায় লবনাক্ত অনাবাদি জমিতেও বাড়ছে সূর্যমুখী চাষ। চরাঞ্চলে সরিষার চাষ না হওয়ায় সূর্যমুখীর সম্ভাবনা রয়েছে। স্থানীয় বড় কোম্পানিগুলো সুর্যমুখী কিনছে , ফলে নিশ্চিত বাজার পেয়ে কৃষকরা এ ফসল চাষে আগ্রহী হচ্ছে। চলতি বছরে সদর ও সূবর্ণচর উপজেলায় প্রায় ৫’শত একর জমিতে সূর্যমুখীর আবাদ হয়েছে।

কৃষি মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সদস্য মামুনুর রশিদ কিরন এমপি জানান, কৃষি বিভাগ থেকে এ ফসল চাষে কৃষকদের আগ্রহী করতে বিভিন্ন পরামর্শসহ প্রনোদনা, বীজ কীটনাশক সরবরাহসহ সব ধরণের সহযোগিতা করা হচ্ছে। সূত্র: ডিবিসি নিউজ

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত