প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

২৯ মে থেকে লঞ্চের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু

জান্নাতুল ফেরদৌসী: ঈদে বাড়তি চাপ থাকায় লঞ্চের অগ্রিম কেবিন বুকিং এ আগ্রহ থাকে যাত্রীদেরও সবচেয়ে বেশি। তাদের কথা মাথায় রেখে এবার ১২ রমজান (২৯ মে) থেকে লঞ্চের কেবিনের অগ্রিম টিকিট বুকিং শুরু হবে বলে জানিয়েছেন এমভি কীর্তনখোলার মালিক মঞ্জুরুল আহসান ফেরদৌস। টিকিট পাওয়া যাবে ১৮ থেকে ২০ রমজান পর্যন্ত। আর বিআইডব্লিউটিসির স্টিমারের টিকিট বুকিং শুরু হতে পারে ১৫ রমজান (পহেলা জুন) থেকে। বিগত যে কোনো সময়ের চেয়ে এবার ঈদে ঢাকা-বরিশাল রুটে বিলাসবহুল লঞ্চের সংখ্যা বেশি থাকবে বলে জানিয়েছেন লঞ্চ মালিকরা।

কম ভাড়া ও আরামদায়কসহ নানা কারণে নদ-নদী বেষ্টিত বরিশাল বিভাগের বেশিরভাগ মানুষের যাতায়াত নৌ-পথেই। ঢাকা-বরিশাল নৌ-পথে লঞ্চের কেবিনের টিকিট সাধারণ সময়েই অনেকটা সোনার হরিণ।

মঞ্জুরুল আহসান ফেরদৌস বলেন, কেবিনের টিকিট যেন কালোবাজারিদের হাতে না যায় সেজন্য আমরা সজাগ রয়েছি। আগে আসলে আগে পাবেন ভিত্তিতে কেবিনের টিকিট বিক্রি করা হবে।

লঞ্চ মালিক সমিতি জানায়, ২০ রমজানের মধ্যে কেবিনের অগ্রিম টিকিট বুকিং শেষ হবে বলে জানিয়ে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ লঞ্চ মালিক সমিতি সহ-সভাপতি সাইদুর রহমান রিন্টু বলেন, এবার লঞ্চের সংখ্যা অনেক বেশি এবং আকারও বড়। আমি মনে করি না এবার কোনো সমস্যা হবে।

বিআইডব্লিউটিসি’র সহ-মহাব্যবস্থপক সৈয়দ আবুল কালাম আজাদ জানিয়েছেন, এদিকে স্টিমারের কেবিন বুকিং ১৫ রোজা থেকে শুরু হতে পারে। এই টিকিট শুধু ঢাকায় পাওয়া যাবে। এজন্য বিআইডব্লিউটিসি’র প্রধান কার্যালয়ের রিজার্ভেশন শাখায় যোগাযোগ করতে হবে।

লঞ্চগুলোতে শুধু কেবিনের টিকিট অগ্রিম বুকিং করা যায়। তৃতীয় শ্রেণীর টিকিট ভ্রমণের দিন লঞ্চে দেয়া হয়। এবার ঈদে ঢাকা-বরিশাল রুটে মোট ২২টি লঞ্চ ও ৬টি স্টিমার চলার কথা রয়েছে। সূত্র: সময় টিভি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত