প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চবি অচলের হুমকি ছাত্রলীগ নেতার

ডেস্ক রিপোর্ট : চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) প্রশাসনকে নিজের ও বোনসহ ১৩ জনকে শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী পদে চাকরির দাবি জানিয়েছেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা রাকীব হোসাইন। চাকরির দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যের সঙ্গে দেখাও করেন তিনি। তবে উপাচার্য তার এ দাবিকে অযৌক্তিক বলে অস্বীকৃতি জানালে বিশ্ববিদ্যালয় অচল করে দেয়ার হুমকি দেন সাবেক এই ছাত্রলীগ নেতা।

বুধবার (২৩ মে) চবি উপাচার্যের পক্ষে সাংবাদিকদের এসব কথা জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর মোহাম্মদ আলী আজগর চৌধুরী। এসময় তিনি ৮ দফা দাবিতে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী সাধারণ শিক্ষার্থীবৃন্দের ব্যানারে অবরোধ ডাকা সংগঠনটির কোনো অস্তিত্ব আছে কি-না? সে বিষয়ে প্রশ্ন তোলেন।

চবি প্রক্টর বলেন, গত (মঙ্গলবার) রাতে যারা শাটল ট্রেনের চালককে অপহরণ করেছে তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র নয়। এ ধরণের রাষ্ট্রবিরোধী অপরাধের ঘটনায় মামলা করতে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষকে বলা হয়েছে। এর আগেও একই ঘটনায় মামলা করতে বলা হলেও তারা করেনি। অথচ অতীতে রেলপথ, সড়কপথ অবরোধের ঘটনায় মামলা করা হয়েছিল। নিরাপত্তার অজুহাত দেখিয়ে ট্রেন বন্ধ রাখা গ্রহণযোগ্য নয়- যোগ করেন তিনি।

আট দফা দাবির বিষয়ে আলী আজগর চৌধুরী বলেন, বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয় স্টেশনে শাটল ট্রেনের ৮টি বগির বেশি অবস্থানের জায়গা নেই। আর নতুন স্টেশন করা অনেক সময় ও বাজেটের বিষয় রয়েছে। তবে নতুন একজোড়া ট্রেন চালুর বিষয়ে রেলওয়ে সচিবকে অনুরোধ করা হয়েছে। এছাড়া অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে বর্তমানে সেশনজট কম। বর্তমান প্রশাসনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী কাউকে নিয়োগ দেয় হয়নি। অতীতে যারা নিয়োগ পেয়েছেন দলীয় কারণে তাদের চাকরিচ্যুত করার নিয়ম নেই।
সূত্রে জানা যায়, আগামী ৩১ মে আসন্ন সিন্ডিকেট সভাকে কেন্দ্র করে প্রশাসনকে চাপে ফেলে নিজেদের দাবি-দাওয়া আদায় করতেই এ অবরোধের ডাক দেয় আন্দোলনকারীরা। তবে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ব্যানারে অবরোধের ঘোষণা দেয়া হলেও এতে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের দুটি অংশের সমর্থন রয়েছে।

চট্টগ্রাম রেলওয়ে থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহীদুল ইসলাম জানান, চালক অপহরণের ঘটনায় দুষ্কৃতকারীদের বিরুদ্ধে মামলার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। সেই সাথে আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) থেকে আমরা শাটল ট্রেন চালকদের অতিরিক্ত নিরাপত্তা দেবো।
এদিকে আট দফা দাবিতে থেকে অনির্দিষ্টকালের ডাকা অবরোধ স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে। আন্দোলনকারীদের পক্ষে পরিবর্তন ডটকমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র মামুনুর রশীদ।
তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সাথে আমাদের কথা হয়েছে। তারা আমাদের দাবি মেনে নেবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন। তাই আন্দোলন স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে। সূত্র : পরিবর্তন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত