প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ঝগড়া ফেরাতে গিয়ে মারা যান আবদুস সাত্তার

সুশান্ত সাহা : রাজধানীর সবুজবাগের মাদারটেক এলাকায় ঝগড়া ফেরাতে গিয়ে লাঠির আঘাতে আব্দুর সাত্তার (৬৫) নামে এক ব্যাক্তি মারা গেছেন। ওই ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযানে নেমেছে পুলিশ। পাশাপাশি ঘটনাস্থলের সিসিটিভির ফুটেজ সংগ্রহ করেছে পুলিশ।

আব্দুর সাত্তারের গ্রামের বাড়ি জামালপুর জেলার ইসলামপুর উপজেলার কান্দারচর গ্রামে। স্ত্রী ও ৫ সন্তানকে নিয়ে সবুজবাগ মাদারটেক চেয়ারম্যান বাড়ী এলাকায় থাকতেন। পেশায় তিনি রিকশাচালক। নিহত আবদুস সাত্তারের ছেলে শফিকুল ইসলাম জানান, সোমবার বিকেলে নন্দীপড়া সিসিলি গার্মেন্টস একটি চায়ের দোকানে ৩ জন ঝগড়া করছিল। তাদের ঝগড়া থামাতে গেলে লাঠি দিয়ে সাত্তারের মাথায় আঘাত করে একজন। আহতাবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মঙ্গলবার দুপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

সবুজবাগ থানার এসআই মনিবুর রহমান জানান, নন্দীপাড়া প্রজেক্টের একটু আগে সিসিলি গার্মেন্টস এর সামনে ট্রাক ড্রাইভার রহিম ও তার ছেলে সুমন সাথে চা দোনদার হানিফ নামে একজনের কোন বিষয় নিয়ে ঝগড়া হচ্ছিল। তাদের ঝগড়া থামাতে গিয়ে রহিম ও তার ছেলে সুমন হানিফ ও সাত্তারকে লাঠি দিয়ে আঘাত করে। মঙ্গলবার চিকিৎসাধীন অবস্থার তার মৃত্যু হয়। এঘটনায় সোমবার রাতে হানিফ মামলা করেছে। তিনি আরো জানান, রহিম ও তার ছেলে সুমনকে গ্রেফতারে চেষ্টা করা হচ্ছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত