প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নকশা ছাড়াই পূর্বাচলে তৈরি হচ্ছে বহুতল ভবন

হ্যাপী আক্তার : নকশা ছাড়া ভবন তৈরির অনুমোদন দেওয়া হয় না। তবে রাজউক পূর্বাচল উপশহরে নকশা ছাড়াই তৈরি হচ্ছে বহুতল ভবন। মালিকরা আদালতের স্থগিতাদেশ নিয়ে আসায় উচ্ছেদে যেতে পারছে না রাজউক। এতে পরিকল্পনা ব্যাহত হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে পূর্বাচল প্রকল্পে। রাজউক বলছেন, পূর্বাচলের ব্যাপারে কোনো ছাড় নয়, পূর্বাচলে নকশা ছাড়া কোনো স্থাপনায় কঠোর পদক্ষেপ নেবেন তারা।

কুড়িল থেকে বালু নদী পাড় হলেই শুরু পূর্বাচল নতুন শহর প্রকল্প। পূর্বাচলে এখনো পর্যাপ্ত জনবল নিয়োগ দেয়নি রাজউক। একজন পরিদর্শক অতিরিক্ত দায়িত্বে ভবন নির্মাণের কাজ তদারকি করছেন।

২০১৫ সাল থেকে এ পর্যন্ত ৩৫টি বাড়ির নকশা অনুমোদন দেয় রাজউক। তবে কাজ শুরু হয়েছে মাত্র ৪টির। তবে এরইমধ্যে একতলা-দোতলা টিনের বাড়ি ছাড়াও গড়ে উঠছে অনুমোদনহীন কংক্রিটের স্থায়ী ভবনও।

অনুমোদনহীন এমন একটি ভবন ১৩ নম্বর সেক্টরের ৪০৮ নম্বর রোডের নূরজাহান’স প্যারাডাইস। পাশের সড়কেই চলছে অনুমোদনহীন আরেকটি ভবনের নির্মাণ। তবে বিষয়টি গড়িয়েছে আদালত পর্যন্ত।

ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, ডেইরি ফার্ম, গোডাউন, আবাসন, রেস্তোরাঁসহ বিভিন্ন কাজে ব্যবহৃত হচ্ছে একতলা অনুমোদনহীন ভবনগুলো। রাজউক চেয়ারম্যান জানিয়েছে, অস্থায়ীভাবে কিছু ঘরবাড়ি তৈরি হলেও, তা কোনোভাবেই স্থায়ী হবে না।

রাজউকের চেয়ারম্যান আবদুর রহমান বলেছেন, যদি কেউ এই ধরনের বাধা সৃষ্টি করে থাকে অথবা কোনো বাড়ি ঘর থেকে থাকে আমাদের জায়গায়। সেগুলো উচ্ছেদের কার্যক্রম আমরা চালাব। অস্থায়ীভাবে জমি পেয়েছেন যারা তারা হয়তো অস্থায়ীভাবে থাকার জন্য বা চলাচলের জন্য রাস্তা রেখেছেন সে বিষয়ে কিছু বলা হচ্ছে না। তবে পূর্বাচলে যদি আমাদের জমিতে অনুমোদনহীন কোনো স্থাপনা গড়ে উঠে সে ক্ষেত্রে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হবে। সূত্র : ইন্ডিপেন্ডেট টিভি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত