প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জামায়াত নেতার বিরুদ্ধে মসজিদ নির্মাণে বাধা দেয়ার অভিযোগ

ইসমাঈল হুসাইন ইমু : চাঁদা না দেয়ায় মসজিদ-মাদ্রাসা নির্মাণে বাধা দিয়েছেন মেজর (অব.) ওহাব নামের এক জামায়াত নেতা। তিনি এলাকায় প্রভাবশালী হওয়ায় মামলা নেয়নি পটুয়াখালী জেলার দুমকি থানা পুলিশ। জান-মালের নিরাপত্তা ও নির্মাণ কাজ অব্যাহত রাখতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, পুলিশের আইজিপির জরুরী হস্তক্ষেপের দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা।

বৃহস্পতিবার সকালে বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশন (ক্র্যাব) কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন মোরশেদা বেগম নামের এক ভুক্তভোগী।

মোরসেদা বেগম জানান, দুমকি থানা পরিষদের জামায়াতের পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী মেজর (অব.) ওহাব ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর চাহিদা মত ৩ লাখ টাকা চাঁদা না দেয়ায় উত্তর পাঙ্গাশিয়া গ্রামে মসজিদ-মাদ্রাসা নির্মাণ কাজের জন্য নির্মাণ সামগ্রী আনা-নেয়ায় বাধা দেয়। যার কারণে তারা নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দিয়েছে। এছাড়াও চাঁদার টাকা না দেয়ায় গত ১৮ এপ্রিল সকাল ৭টায় মেজর (অব.) ওহাবের ছোট ভাই নেছার উদ্দিন মাস্টারের নেতৃত্বে ২০/৩০ জন সন্ত্রাসী ধারালো দেশীয় অস্ত্র নিয়ে বাড়ীতে হামলা চালায়। তাদেও বলা হয় ৩ লাখ টাকা না দিলে মসজিদ-মাদ্রাসা তৈরি করতে দেয়া হবে না। ওই সময় সন্ত্রাসীরা তাদের বাড়ীর চারদিকে বেড়া দিয়ে আটকে অবরুদ্ধ করে ফেলে। এই ঘটনাটি মোবাইল ফোনে স্থানীয় দুমকি থানা পুলিশকে জানালে এসআই রাকিবুলের নেতৃত্বে পুলিশ সদস্যরা এসে আমাদের উদ্ধার করে। এই ঘটনায় থানায় মামলা করতে গেলে থানার ওসি জানায় তারা এলাকায় প্রভাবশালী ব্যক্তি হওয়ায় মামলা নেয়া যাবে না। পরবর্তীতে আমি ১১ জনকে আসামী করে আদালতে একটি সিআর মামলা দায়ের করি (মামলা নম্বর-৩৮৫/২০১৮ ইং)।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ