Skip to main content

যাকাত আদায়ের নামে সম্পদের প্রচার চলছে

ঢাকÑডোল পিটিয়ে যাকাতের টাকা বিতরণ করলে যাকাত আদায়ের মূল  উদ্দেশ্য থাকে না। যাকাত আদায়ের নামে তাদের উদ্দেশ্য হচ্ছে, তাদের সম্পদের প্রচার করা বা নাম কামানো। এভাবে যাকাত আদায় শরিয়ত সম্মত নয়।  যাকাত আদায়ের জন্য শর্ত হচ্ছে, ব্যক্তি নিজে সম্পদের মালিক হবে এবং অন্যকে মালিক বানাবে। এভাবে নাম কামানো কোন ইবাদত গ্রহণযোগ্য নয়। সাতকানিয়ায় তারা যেভাবে যাকাত বিতরণ করছে, তা অমানবিক ভাবে বিতরণ করছে। এ ক্ষেত্রে জন নিরাপত্তার বিষয়ে সরকার চিন্তা করতে পারে। যাকাত আদায়ের ক্ষেত্রে ধর্মীয় আইনের আশ্রয় নিতে গেলে ইসলামী রাষ্ট্র লাগবে। ইসলামী রাষ্ট্রের যাকাত সরকার সংগ্রহ করবে। প্রতিটি মসজিদে প্রত্যেকে প্রত্যেকের নিজস্ব জায়গা থেকে, জন সচেতনতামূলক আলোচনা চালিয়ে যেতে হবে, যাতে করে সুনির্দিষ্টভাবে বৈধ খাতে যাকাত ব্যয় হয়। পরিচিতি : উপাধ্যক্ষ, ঢাকা আলীয়া মাদরাসা/মতামত গ্রহণ : তাওসিফ মাইমুন/সম্পাদনা : মোহাম্মদ আবদুল অদুদ