প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জবিতে যৌন হয়রানির অভিযোগ
অবশেষে শিক্ষক হালিম সাময়িক বরখাস্ত

রুহুল আমিন : যৌন হয়রানির অপরাধে সাজাপ্রাপ্ত জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) নাট্যকলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক হালিম প্রামানিকের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে ফের একাধিক ছাত্রী যৌন হয়রানির অভিযোগ করেছেন। ফলে হালিম প্রামাণিককে সাময়িক বরখাস্ত করে ফের তদন্ত শুরুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

একইসঙ্গে এর আগে যৌন হয়রানির অভিযোগ করা দুই শিক্ষার্থী তাদের ঘটনা পুনঃতদন্ত করে ওই শিক্ষকের উপযুক্ত শাস্তি চেয়ে উপাচার্য বরাবর চিঠি দিয়েছেন।

এর আগে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে নাট্যকলা বিভাগের দুই ছাত্রীর করা যৌন হয়রানির অভিযোগের সত্যতা প্রমাণিত হওয়ায় গত ২৬ এপ্রিল বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭৭তম সিন্ডিকেট সভায় হালিম প্রামানিককে দুই বছরের জন্য পদোন্নতি আটকে দেওয়াসহ তিরস্কার করে শাস্তি দেওয়া হয়। কিন্তু অপরাধের সঙ্গে শাস্তি সামঞ্জস্যপূর্ণ না হওয়ায় ঘটনা পুনঃতদন্ত করে কঠোর শাস্তির দাবি করে গতকাল (৩০ এপ্রিল) ভুক্তভোগী দুই ছাত্রী উপাচার্য বরাবর চিঠি দিয়েছেন।

এ বিষয়ে গণমাধ্যমে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান বলেন, হালিম প্রামানিকের বিরুদ্ধে নতুন করে আরও যৌন হয়রানির অভিযোগ এসেছে। এছাড়া এর আগে যাদের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সম্প্রতি হালিম প্রামানিক শাস্তি পেয়েছেন তারা আবার ঘটনাটি পুনঃতদন্তের জন্য চিঠি দিয়েছে। ফলে আমরা নতুন করে পাওয়া অভিযোগ ও পুরাতন অভিযোগগুলো তদন্ত করবো। তিনি বলেন, নতুন অভিযোগগুলো পাওয়ার পর নতুন তদন্ত কমিটি গঠন করেছি। সঙ্গে তদন্তে রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত তিনি সাময়িক বহিষ্কার থাকবে । বিশ্ববিদ্যালয়ের তিন জন ডিন, অভিযোগকারী এবং অভিযুক্তের পক্ষ থেকে দুই জনসহ মোট পাঁচ জনকে কমিটির সদস্য করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, অভিযোগ ওঠার পর থেকেই হালিম প্রামাণিক সাময়িক বরখাস্ত ছিলেন। তবে সিন্ডিকেট সভায় তার সাজা হয় পদোন্নতি বিলম্বিত করা ও তিরস্কার। তার ফের ক্লাসসহ একাডেমিক কাজে যোগ দেওয়ার কথা ছিল। তবে নতুন করে ফের সাময়িক বরখাস্ত হলেন তিনি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত