প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনাল মঙ্গলবার!

স্পোর্টস ডেস্ক: উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের এবারের আসরের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে ২৬ মে। ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের অলিম্পিয়স্কি স্পোর্টস কমপ্লেক্স স্টেডিয়ামে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে। এটা উয়েফা কাগুজে সূচীতে। জিনেদিন জিদানের কাছে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ‘আসল ফাইনাল’ আগামীকাল মঙ্গলবার সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে! জিদানের এই ‘ফাইনাল’ তত্ত্বের রহস্য ফুটবলপ্রেমীদের বুঝতে অসুবিধা হওয়ার কথা নয়। মঙ্গলবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ সেমিফাইনালের ফিরতি লেগে মুখোমুখি হচ্ছে রিয়াল মাদ্রিদ ও বায়ার্ন মিউনিখ।
দুই জায়ান্টের এই ফাইনালে ওঠার মঞ্চটাকেই জিদান আখ্যায়িত করেছেন ‘আসল ফাইনাল’ বলে। শুধু ‘ফাইনাল’ ভাবাই নয়, বার্নাব্যুর মঙ্গলবারের ম্যাচটার গায়ে জিদান লাগিয়ে দিয়েছেন ‘গেম অব দ্য ইয়ার’ খেতাব! রিয়াল কোচ এসব বিশেষণ লাগাচ্ছেন নিজ দলের খেলোয়াড়দের উজ্জীবিত করতে। গা আলগাভাব কাটিয়ে খেলোয়াড়দের জয় ক্ষুধার জ্বলুনি হিসেবে!
গত বুধবার প্রথম লেগে বায়ার্নের মাঠ থেকে ২-১ গোলে জিতে এসেছে রিয়াল। কিয়েভের ফাইনালের পথে রিয়ালই তাই এগিয়ে। মঙ্গলবার ফিরতি লেগ ম্যাচটিও আবার তাদের ঘরের মাঠ বার্নাব্যুতে। কিন্তু গাণিতিকভাবে এগিয়ে থাকলেও জিদান আপাতত তা ভুলে থাকতে চাইছেন। তিনি ওই হিসাব ভুলে যাওয়ার তাড়না দলের খেলোয়াড়দেরও!

বার্নাব্যুর ম্যাচকে সামনে রেখে শিষ্যদের স্পষ্ট করে বলে দিয়েছেন জিদান, ‘প্রথম লেগে কি হয়েছে, সেটা ভুলে যাও! বরং এটা মনে করো যে. বায়ার্নের বিপক্ষে আমরা কোনো ম্যাচই খেলিনি। মঙ্গলবারই তাদের বিপক্ষে আমরা প্রথম খেলব। প্রস্তুতিটাও নিতে হবে সেভাবেই।’
প্রতিপক্ষের মাঠ থেকে জিতে আসার পরও ঘরের মাঠ ম্যাচ নিয়ে জিদান এতোটা সতর্ক হওয়ার কারণও আছে। জিদান ভালো করেই জানে বায়ার্নের কামড় বিষ কতটা। এই গত মৌসুমেও এই চ্যাম্পিয়ন্স লিগেরই কোয়ার্টার ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিল দুদল। গতবারও বায়ার্নের মাঠ থেকে প্রথম লেগে ২-১ গোলে জিতে ফিরেছিল রিয়াল। কিন্তু ফিরতি লেগে রিয়াল ঠিকই কাঁদিয়ে ছেড়েছিল বায়ার্ন। রিয়ালের জালে দুই গোল ঢুকিয়ে বার্নাব্যুতে কাঁপিয়ে তুলেছিল। ফিরতি লেগের নির্ধারিত ৯০ মিনিট খেলা শেষে ফল দাঁড়ায় ৩-৩ সমতা। অ্যাওয়ে গোলও দুই দলের সমান, ২-২। ফলে খেলা গড়ায় অতিরিক্ত ৩০ মিনিটে।
শেষ পর্যন্ত অতিরিক্ত সময়ে ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর জাদুতে বার্নাব্যুর সেই কাঁপন থামে। জিদানকে সতর্ক করে দিয়েছে জুভেন্টাসের বিপক্ষে এবারের কোয়ার্টার ফাইনালও। প্রথম লেগে জুভেন্টাসের মাঠ থেকে ৩-০ গোলে জিতে আসে রিয়াল। কিন্তু বার্নাব্যুতে ফিরতি লেগে জুভেন্টাস ঠিকই রিয়ালের জালে ঢুকিয়ে দেয় ৩ গোল। শেষ রক্ষা হয় ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর পেনাল্টি গোলে। যে পেনাল্টির সিদ্ধান্ত এখনো মানতে পারছে জুভেন্টাস।
কাল বায়ার্নও যে সে রকমই মরণ কামড় বসাতে চাইবে, সেটা অনুমিতই। জিদান তাই সতর্ক। সতর্ক করে দিচ্ছেন শিষ্যদেরও, ‘সবাই বলবে, ফাইনাল হবে কিয়েভে। কিন্তু আমি বলব, মঙ্গলবার বার্নাব্যুতেই ফাইনাল। ম্যাচটাকে ¯্রফে ফাইনালই ভাবতে হবে আমাদের। ফাইনাল ভেবেই খেলতে হবে। মনে রাখতে হবে, এই ম্যাচটা জিতলেই কেবল আমরা ওই ফাইনালে যেতে পারব।’ পরিবর্তন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত