প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

একইসঙ্গে একাধিক সাংবাদিক নিহত হবার ঘটনাপুঞ্জি

আসিফুজ্জামান পৃথিল : সোমবার আফগানিস্তানের কাবুলে গোয়েন্দা সদর দপ্তরে জোড়া বোমা হামলায় ৭ সাংবাদিকসহ নিহত হয়েছে অন্ততপক্ষে ২৯ জন। ঝুঁকিপূর্ণ পেশায় কাজ করা স্বত্তেও সচরাচর একইসাথে এত সাংবাদিক মৃত্যুর ঘটনা খুব বেশী চোখে পরেনা। তাই বলে এমন নয় একই সাথে সাংবাদিক মৃত্যুর ঘটনা ঘটেনা। সাম্প্রতিক অতীতে একইসাথে একাধিক সাংবাদিকের অপঘাতে মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে কমপক্ষে ৩ বার। এর তিনটিই ছিল দূর্ঘটনা।

২০১৬ সালের ২৮ নভেম্বর কলম্বিয়ায় একটি বিমান দূর্ঘটনায় নিহত হন ২১ সাংবাদিক। ২০১১ সালের ১৮ আগস্ট একটি হেলিকপ্টার বিদ্ধস্ত হয়ে নিহত হন ৩ সাংবাদিক। আর ২০০১ সালে উগা-ায় একটি সড়ক দূর্ঘটনায় মারা যান ৪ ক্রীড়া সাংবাদিক।

চেপেকোয়েনসে ট্রাজেডি: ২০১৬ সালের ২৮ নভেম্বর একটি চার্টার্ড করা বিমান বলিভিয়ার স্যান্টাক্রুজ থেকে কলম্বিয়ার কর্ডোভার উদ্দেশ্যে উড়ে যাচ্ছিল। বিমানটি ব্রাজিলের পেপেকোয়েনসে ফুটবল দলকে বহন করছিল। এই দলের ফুটবলাররা যাচ্ছিলেন সুদামেরিকানা কাপ ফাইনালের ফিরতি লেগ খেলতে। পথে জ্বালানি সরবারহ লাইনে সমস্যা দেখা দিলে বিমানটি কলম্বিয়ার লা ইউনিয়নের মাউন্ট সেরো গর্ডোতে বিদ্ধস্ত হয়। বিমানটির ৭৭ আরোহির ৭১ জনই ঘটনাস্থলে নিহত হন। এর মধ্যে ছিলেন ২১ জন সাংবাদিক। তারা প্রত্যেকেই ব্রাজিলের বিভিন্ন প্রথম সারীর গণমাধ্যমে কর্মরত ছিলেন।

অস্ট্রেলিয়ায় হেলিকপ্টার দূর্ঘটনা : ২০১১ সালের ২১ আগস্ট সন্ধ্যায় নদক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ায় একটি হেলিকপ্টার বিদ্ধস্ত হয়ে মারা যান ৩ জন সাংবাদ কর্মী। এই ৩জনই অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় গণমাধ্যম এবিসিতে কাজ করকেন। হেলিকপ্টারটি ছিল এবিসির নিজস্ব পরিবহণ হেলিকপ্টার।

উগা-ায় সড়ক দূর্ঘটনা: ২০০১ সালে উগা-ায় একটি সড়ক দূর্ঘটনায় ৪ ক্রীড়া সাংবাদিক নিহত হন। তাদের গাড়িটিকে উল্টো দিক থেকে আসা একটি ট্রাক ধাক্কা মারলে গাড়িটি খাদে পরে যায়। এবং ৪ জন সাংবাদিকই ঘটনাস্থলে নিহত হন। – মিরর, টেলিগ্রাফ, নিউ ভিশন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত