প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ঢাবি ভিসির বাসভবনে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনায় ৪ জন গ্রেফতার

সুজন কৈরী : কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনের সময়  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বাসভবনে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনায় চারজনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি-দক্ষিণ) পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলো- মো. রাকিবুল হাসান ওরফে রাকিব (২৬), মো. মাসুদ আলম ওরফে মাসুদ (২৫), মো. আলী হোসেন শেখ ওরফে আলী (২৮) ও আবু সাইদ ফজলে রাব্বী ওরফে সিয়াম (২০)। রোববার বেলা একটার দিকে চানখারপুল এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। তাদের কাছ থেকে ঘটনার সময় চুরি যাওয়া ২টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়েছে।

ডিএমপির মিডিয়া সেন্টার সূত্রে জানা যায়, গ্রেফতার ৪ জনের মধ্যে কেউ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র নয়। শুধুমাত্র মাসুদ আলম ঢাকা আলীয়া মাদ্রাসার ছাত্র। অন্য ৩ জন কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র নয়। এরমধ্যে গ্রেফতারকৃত রাকিবের নামে বরিশাল ও লক্ষীপুরে ৫ টি মামলা রয়েছে।

এদিকে রোববার তাদের আদালতে হাজির করে ঘটনার মূল রহস্য উদঘাটনের জন্য ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করে ডিবি পুলিশ। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম রায়হানুল ইসলাম তাদের বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এদের মধ্যে রাকিবুল হাসান ওরফে রাকিব ৪ দিন, আলী হোসেন শেখ ওরফে আলী ৩ দিন, মাসুদ আলম ওরফে মাসুদ ও আবু সাইদ ফজলে রাব্বী ওরফে সিয়ামকে দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

শাহবাগ থানার আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা পুলিশের উপ-পরিদর্শক মাহমুদুল হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গত ৯ এপ্রিল রাতে অজ্ঞাতনামা মুখোশধারী কয়েকজন দুর্বৃত্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বাসভবনে হামলা চালায়। এ সময় তারা বাসভবনে ভাংচুর, অগ্নিসংযোগ করে মালামাল চুরি করে। এ ঘটনায় ১০ এপ্রিল ঢাবি’র সিনিয়র সিকিউরিটি অফিসার এস এম কামরুল আহ্সান শাহবাগ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, ৯ এপ্রিল রাতে অজ্ঞাতনামা অনেক মুখোশধারী সন্ত্রাসী ও দুস্কৃতিকারী হাতে লোহার রড, পাইপ, হেমার, লাঠি ইত্যাদি নিয়ে বৈআইনী জনতাবদ্ধে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্যের বাসভবনের বাউন্ডারী ওয়াল টপকে এবং ভবনের মুল ফটকের তালা ভেঙ্গে ভবনের ভিতরে অনধিকার প্রবেশ করে বাসভবনের মুল্যবান জিনিসপত্র, আসবাবপত্র, ফ্রিজ, টিভি, লাইট, কমোড ও বেসিন সহ অনেক মালামাল ভাংচুর করে ক্ষতিসাধন করে এবং মূল্যবান সম্পদ লুটতরাজ করে। তাছাড়া ভবনে রক্ষিত ২টি গাড়ী পুড়িয়ে দেয় এবং আরও ২টি গাড়ী ভাংচুর করে। এছাড়াও ভবনে রক্ষিত সিসিটিভি ক্যামেরাগুলো ভেঙ্গে ফেলে এবং সিসি ক্যামেরার ডিভিআরগুলো আগুনে পুড়িয়ে নষ্ট করে ফেলে ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত