প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

হোয়াইট হাউসে সাংবাদিকদের নৈশভোজে ট্রাম্প, ইভানকা ও পেন্সকে নিয়ে ঠাট্টা

লিহান লিমা: মিশিগানের র‌্যালির অজুহাত দিয়ে দ্বিতীয়বারের মত হোয়াইট হাউসের সাংবাদিকদের সঙ্গে নৈশভোজ এড়িয়ে গিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে নৈশভোজ পরিচালনার দায়িত্বে থাকা কমোডিয়ান মাইকেল ওলফ এর ঠাট্টা থেকে রেহাই পান নি ট্রাম্প। সেই সঙ্গে আক্রমণের শিকার হয়েছিলেন প্রেস সেক্রেটারি সারাহ হাকেবি স্যান্ডার্স, ফার্স্ট ডটার ইভানকা ট্রাম্প, ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স ও ট্রাম্পের পরামর্শক কেলিনি কনওয়ে।

রসবোধ দিয়ে নৈশভোজ মাতিয়ে রেখেছিলেন মাইকেল ্ওলফ, শুনতে হয়েছে সমালোচনা্ও

উপস্থাপনার শুরুতেই ওলফ পর্নস্টার স্ট্রোমি ড্যানিয়েলস এর সঙ্গে ট্রাম্পের সম্পর্কের বিষয়টি ইঙ্গিত করে বলেন, ‘শুভ সন্ধ্যা, শুভ সন্ধ্যা। এখন ২০১৮ সাল এবং আমি একজন নারী তাই আমার মুখ এখন বন্ধ করা যাবে না, যদি না আপনি মাইকেল কোহেনের মাধ্যমে আমাকে ১ লাখ ৩০ হাজার ডলার দেয়ার প্রস্তাব দেন।’

                                            সারাহের এই হাসি বেশিক্ষণ স্থায়ী হয় নি

নৈশভোজে উপস্থিত থাকা সারাহকেও ব্যক্তিগত আক্রমণ করেন ওলফ। তিনি বলেন, ‘সারাহকে পছন্দ করি। আমি মনে করি তিনি অনেক কিছু জানেন। তবে তিনি সত্যকে পুড়িয়ে দেন এবং ছাই দিয়ে নিজের ধূসর চোখের কারিশমা দেখান। তবে হতে পারে তিনি জন্মগতভাবেই এই চোখ পেয়েছেন।’

                               নৈশভোজে আমন্ত্রিত ছিলেন তিন হাজার অতিথি

ওলফ ফার্স্ট ডটার ইভানকা ট্রাম্পকে তুলোধুনো করে বলেন, ‘ইভানকার নারী অধিকারের পক্ষে দাঁড়ানোর কথা ছিল। কিন্তু তিনি নারীদের জন্য ততটাই করতে পারেন যতটা একটা খালি ন্যাপকিনের প্যাকেট করতে পারে।’ এছাড়া ওলফ ইভানকাকে দামী ডায়াপারের সঙ্গে তুলনা করে বলেন, ‘এটিকে দেখতে বাহিরে থেকে সুন্দর লাগে কিন্তু ভেতরে আবর্জনা।’

                                          ট্রাম্প তখন মিশিগানে র‌্যালিতে ব্যস্ত

ট্রাম্পের পরামর্শক কেলিনি কনওয়েকে আক্রমণ করে তিনি বলেন, ‘তার নামের শেষের অংশ তার পদের সঙ্গে যায়। ‘ওয়ে’। মাইক পেন্সকে নিয়ে তিনি বলেন, ‘তিনি এমন একজন ব্যক্তি যে দাঁত ব্রাশ করেন এবং পরে তাজা কমলার জুস পান করেন। তবে পেন্স ছেলে হিসেবে ভাল। কারণ স্ত্রীর অনুপস্থিতে তিনি অন্য নারীর সঙ্গে কথা বলেন না।’ এছাড়া ওলফ সিএনএন, ফক্স নিউজ, সিএনবিসি, কংগ্রেসেরও ঠাট্টাচ্ছলে সমালোচনা করেন।

এদিকে নৈশভোজে ওলফের উপস্থাপনা তুমুল হাস্যরসের জন্ম দিলেও ট্রাম্পের সাবেক মিত্র শেস স্পাইসার, অ্যান্থনি স্কারামুচি, সিএনএন এর সাংবাদিক জেফ জেলিনি, রেইন্স প্রিবাস এর সমালোচনা করেন। ডেইলি মেইল।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত