প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

যশোরের বাঘারপাড়ায় বাস খাদে, নিহত ১ আহত ৩০

জাহিদুল কবীর মিল্টন,যশোর: যশোরের বাঘারপাড়ায় যাত্রীবাহি চলন্ত বাসের টায়ার বার্স্ট হয়ে খাদে পড়ে গাড়ির হেলপার রাজু হোসেন (৩৫) নামে এক শ্রমিক নিহত হয়েছেন। দুর্ঘটনায় ৩০জনের মত যাত্রী আহত হয়।

দুর্ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার বেলা ১২টার দিকে যশোর-নড়াইল সড়কের করিমপুর মাধ্যামিক বিদ্যালয়ের সামনে। খবর পেয়ে বাঘারপাড়া থানা, হাইওয়ে ফাঁড়ি ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা আহতদের উদ্ধার করেন। এদের মধ্যে সাত জনকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের নড়াইল সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। দুর্ঘটনার পর যশোর-নড়াইল সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এক ঘণ্টা পর পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, যশোর থেকে ছেড়ে (নারায়ণগঞ্জ ব-০৪-০০৪৮) বাসটি প্রায় ৫০ জন যাত্রী নিয়ে নড়াইল যাচ্ছিল। বেলা ১২টার দিকে করিমপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সামনে পৌঁছালে বাসের সামনের বাম পাশের চাকার টায়ার বার্স্ট হলে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন। এতে বাসটি রাস্তার পাশের মেহগুন গাছে ধাক্কা লেগে খাদে পড়ে যায়। এই দুর্ঘটনায় গাড়ির হেলপার রাজু হোসেন ঘটনাস্থলেই মারা যায়। বাঘারপাড়া থানার এসআই নিয়ামুল ইসলাম বলেন, বাসের চালকের সন্ধান পাওয়া যায়নি। দুর্ঘটনাকবলিত বাসটি পুলিশ হেফাজতে আছে।

যশোর জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ডাক্তার বলেন, ‘সড়ক দুর্ঘটনায় সাতজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাদের অবস্থা এই মুহূর্তে বলা যাচ্ছে না। সবার অবস্থাই আশঙ্কাজনক।’নিহত হেলপার রাজু হোসেন নড়াইল জেলার তুলারামপুর গ্রামের ফারুক হোসেনের ছেলে।

আহত, গাড়ির সুপারভাইজার তুলারামপুর গ্রামের আব্দুস সাত্তারের ছেলে রাজু আহম্মদ (৩০), বাসের যাত্রী যশোর সদরের বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের মোমিনের ছেলে মাহবুবু (৫০), স্ত্রী আলেয়া বেগম (৪০), বাঘারপাড়া উপজেলার দোহাকুলা গ্রামের জলিলের স্ত্রী আঞ্জুরা খাতুন (৩০), একই গ্রামের রাব্বি (২৮) অজ্ঞাত নারী (৩০), ঢাকার কেরানিগঞ্জের ধীরঞ্জনের ছেলে সাধনকুমার (৪০) কে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভতি করা হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত